Tuesday, November 1st, 2016
মানবাধিকার পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়নি
November 1st, 2016 at 12:52 pm
মানবাধিকার পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়নি

ঢাকা: অক্টোবর মাসে দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির কোন ধরণের পরিবর্তন হয়নি -দেশের অন্যতম মানবাধিকার প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা এমন কথাই বলেছে। সংস্থার মাসিক পর্যবেক্ষণ ও গবেষণার মাধ্যমে এ চিত্র সামনে এসেছে।

সংস্থাটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি মাসে শিশু হত্যা-নির্যাতনের ও ধর্ষণের ঘটনা উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে গেছে। এছাড়াও পারিবারিক ও সামাজিক কোন্দলে আহত ও নিহত, গৃহকর্মী নির্যাতন ও খুন, নারী নির্যাতন, রাজনৈতিক সহিংসতার ঘটনা উল্লেখযোগ্য ।

বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা  (বিএমবিএস) কমিউনিকেশন এন্ড ডকুমেন্টেশন অফিসার ফাতেমা ইয়াসমিনের পাঠানো তথ্যে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার অক্টোবর মাসের মনিটরিংয়ে পাওয়া তথ্য-উপাত্ত থেকে দেখা যায়:

ক্রসফায়ার:  অক্টোবর মাসে ক্রসফায়ারে মৃত্যু হয় ২২ জনের, এর মধ্যে পুলিশের হাতে নিহত হন ১০ জন এবং  র‌্যাব কর্তৃক নিহত ১১ জন ও যৌথ বাহিনীর হাতে একজন। এ মাসে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর জঙ্গি নিধন অভিযানে ১১ জঙ্গি নিহত হয়েছেন।

ধর্ষণ: অক্টোবর মাসে মোট ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৪৪ জন নারী ও শিশু । এদের মধ্যে শিশু ১৯ জন।  ১৪ জন নারী।  ১০ জন নারী গণধর্ষণের শিকার হন । ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় ১ জনকে। হবিগঞ্জের বাহুবলে চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে অপহরণ করে জোরপূর্বক রাতভর গণধর্ষণ করে একদল দুর্বৃত্ত। দিনাজপুরে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা সারাদেশে নিন্দার ঝড় তোলে এ মাসে। তাছাড়া ১৪জন নারী যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন।

শিশু হত্যা: অক্টোবর মাসে ১৫ শিশুকে হত্যা করা হয়। নির্যাতনের শিকার হয় ১০ শিশু। সিলেটে স্বামী-স্ত্রীর কলহের জেরে বাবা খুন করে তার দুই সন্তানকে। রাজধানীতে পাওনা টাকা আদায় করতে না পেরে এক রিক্সাচালকের শিশু কন্যাকে হত্যা করে পাওনাদার।

যৌতুক: অক্টোবর মাসে যৌতুকের কারণে প্রাণ দিতে হয়েছে ৩ নারীকে। নির্যাতনের শিকারও হন ৫জন। কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে দুইলক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য সন্ধ্যা নামে এক গৃহবধূকে অমানবিক নির্যাতন করেছে তার স্বামী। ঢাকার কেরানীগঞ্জে মারমীন নামের এক গৃহবধূকে যৌতুকের দাবিতে কেরোসিন ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করে স্বামী।

সামাজিক অসন্তোষ: সামাজিক অসন্তোষের শিকার হয়ে অক্টোবরে নিহত হয়েছেন ১৪ জন! আহত হয়েছেন ৩০৭ জন। শেরপুরের নকলায় টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সামাজিক সহিংসতায় আহত ও নিহতের ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সুনামগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধের জেড়ে ৪০ জন আহত হয়েছেন। বেশির ভাগ ঘটনাই ঘটে জমি জমা, দুই গ্রামের খেলা নিয়ে সংঘর্ষ বা তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে।

পারিবারিক কলহ: পারিবারিক কলহে অক্টোবর মাসে নিহত হন ১৭ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ৯ জন, নারী ৮জন। তাছাড়া বিভিন্ন কারণে এ মাসে স্বামীর হাতে নিহত হন ২৬ জন নারী। পারিবারিক সদস্যদের মধ্যে দ্বন্দ্ব, রাগ, পরকীয়াসহ বিভিন্ন পারিবারিক কারণে এসব মৃত্যু সংগঠিত হয় বলে জানা গেছে।

আত্মহত্যা: অক্টোবর মাসে আত্মহত্যা করেছে ৪৬ জন। এদের মধ্যে ১৭ জন পুরুষ ও ২৯ জন নারী। পারিবারিক দ্বন্দ্ব, প্রেমে ব্যর্থতা, অভিমান, রাগ ও যৌন হয়রানি, পরীক্ষায় খারাপ ফল, এমনকি পছন্দের পোষাক কিনতে না পারার কারণেও আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়।

খুন: অক্টোবর মাসে দেশে সন্ত্রাসী ঘটনায় নিহত হন ১০২ জন ও আহত হন ৯১জন। রাজধানীর বনানীতে একটি বহুতল ভবনে ইডেন করেজের সাবেক অধ্যাপককে হাত পা বেঁধে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। মানিক মিয়া নামে এক পুলিশের সোর্সকে কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় রাজধানীতে।

অন্যান্য ঘটনা- অক্টোবর মাসে ৫জন এসিড নিক্ষেপের শিকার হন। মাদকের প্রভাবে বিভিন্নভাবে নিহতের সংখ্যা ৫জন, আহত হন ১৬জন। সড়ক দুর্ঘটনায় এ মাসে নিহত ২৭৭ ও আহত ৪২০ জন। তাছাড়া পানিতে ডুবে, অসাবধানবশত, বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে, বজ্রপাতে  মৃত্যুবরণ করেছে ৯৫ জন। গণপিটুনিতে নিহত হন ৪ এবং আহত হন ১৬ জন। তাছাড়া ভারতীয় সীমান্ত বাহিনী কর্তৃক নিহত হন ১ জন, আহত ৯ জন। চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয় ৯ জনের। জঙ্গি ও সন্ত্রাসী দমন অভিযানের নামে গনগ্রেফতার করা হয় ৩৮৯ জনকে। এ মাসে রাজশাহী, দিনাজপুর, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, মৌলভিবাজার, ঝিনাইদহ ও মুন্সিগঞ্জ থেকে ১৮ জন নিখোঁজ হয় ।

সংস্থাটি মনে করে, মানবাধিকার লংঘন হতে থাকলে দেশের অগ্রগতি ব্যাহত হবে, সুশাসন প্রতিষ্ঠার অঙ্গিকার মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। মানবাধিকার লক্সঘনের ঘটনাগুলো নিয়মিত পর্যবেক্ষণ ও প্রতিরোধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন, আইনের সঠিক প্রয়োগ, অপরাধিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, নৈতিক অবক্ষয় রোধে বিভিন্ন পর্যায়ে কাউন্সিলিং, আইন শৃক্সখলা বাহিনীর প্রশিক্ষণ, ভালো কাজের পুরষ্কার, সামাজিক সংগঠনের সচেতনতামূলক কার্যক্রম, স্কুল কলেজে সচেতনতার কার্যক্রম, মিডিয়ায়  সম্প্রচারের মাধ্যমে দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির উন্নতি সম্ভব।

বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা ৭৯ ধরনের মানবাধিকার লংঘনের ঘটনার তথ্য সংরক্ষণ করে।

উল্লেখ্য, এ মাসে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার সার্বিক গবেষণা তথ্য মোতাবেক এসকল ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ (আহত ও নিহত) হন মোট ২৩৩৩ জন নারী , পুরুষ ও শিশু।

প্রতিবেদক: ফায়েজ, সম্পাদনা: ময়ূখ, মাহতাব

 


সর্বশেষ

আরও খবর

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ


ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক

ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক


করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু

করোনায় আরও ৩৯ মৃত্যু


করোনায় আক্রান্ত শচীন

করোনায় আক্রান্ত শচীন


শুক্র ও শনিবার যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে

শুক্র ও শনিবার যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে


মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, শিশুবক্তা রফিকুলসহ অন্তত ১০ জন আটক

মতিঝিলে মোদিবিরোধী বিক্ষোভ, শিশুবক্তা রফিকুলসহ অন্তত ১০ জন আটক


৮ মাস পর দেশে করোনায় এক দিনে সর্বোচ্চ ৩৫৫৪ শনাক্ত

৮ মাস পর দেশে করোনায় এক দিনে সর্বোচ্চ ৩৫৫৪ শনাক্ত


শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ১৪ জঙ্গিকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড

শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ১৪ জঙ্গিকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড


শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ

শবে বরাতের ছুটি ৩০ মার্চ


গান্ধী শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন বঙ্গবন্ধু

গান্ধী শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন বঙ্গবন্ধু