Saturday, July 30th, 2016
মানিকগঞ্জে নতুন এলাকা প্লাবিত
July 30th, 2016 at 6:40 pm
মানিকগঞ্জে নতুন এলাকা প্লাবিত

মানিকগঞ্জ:  জেলার শিবালয় উপজেলার আরিচাঘাট পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে নদী তীরবর্তী বিভিন্ন স্থানে ভাঙন ও নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় আরো ১০ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৬৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানা গেছে।

নীচু এলাকার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে বাড়িতেও বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। যে সব বিদ্যালয়ের আঙ্গিনায় পানি প্রবেশ করেছে ওই সব বিদ্যালয়ের শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে।

বিশেষ করে জেলার শিবালয়, দৌলতপুর ও হরিরামপুর  উপজেলার চরাঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। এদের  বাড়ি-ঘর ডুবে গিয়ে খাবার সংকটসহ বিশুদ্ধ পানির অভাব দেখা দিয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো ত্রাণ সামগ্রী পায়নি বলে পানি বন্দীরা অভিযোগ করেছেন।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৈপরিবহন কর্তৃপক্ষের(বিআইডব্লিউটিএ) আরিচা কার্যালয়ের গেজ রিডার আলমগীর হোসেন জানান, যমুনা নদীর এ পয়েন্টে এক সপ্তাহ ধরে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। শুক্রবার সকাল নয়টা থেকে শনিবার সকাল নয়টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১০ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়ে ১০ দশমিক ১১ মিটারে পৌঁছেছে। যা বিপদসীমার ৬৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জানা গেছে, যমুনায় পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে এর শাখা নদী ইছামতি, কালিগঙ্গা, ধলেশ্বরীতে অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে দৌলতপুর উপজেলার চরকাটারী, বাঁচামারা, বাঘুটিয়া, জিয়নপুর ও খলসী ইউনিয়নের ইসলামপুর, বাসাইল, মুন্সিকান্দি, জোতকাশি, বেপারীপাড়া, ফকিরপাড়া, রাহাতপুর, চুয়াডাঙ্গা, হাজিপাড়া, কাচারীপাড়া, উত্তরখন্ড, অহেল আলীর পাড়া, গোবিন্দপুর, নকের আলী মাদবরপাড়া, বাঘপাড়া, মন্ডলপাড়া, বড়টিয়া, আমতলী, কাটাখালি ও বৈন্যা এলাকায় ভয়াবহ নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে।

শাখা নদী তীরবর্তী শ্রীধরনগর, কুস্তা, ঘিওর, মাইলাগি, জাবরা, তরা, বেউথা, নয়াকান্দিসহ প্রভৃতি নতুন নতুন এলাকাও পড়েছে ভাঙনের মুখে। অনেক স্থানে বাঁধ ভেঙ্গে নদী তীরবর্তী এলাকাসমূহে পানি ঢুকে পড়েছে। নিন্মাঞ্চলের বাড়ি-ঘর ইতিমধ্যে ডুবে গেছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আলেয়া ফেরদৌসি শিখা জানান, শনিবার পর্যন্ত জেলার নিন্মাঞ্চলের ৩৮ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আঙ্গিনা প্লাবিত হয়েছে। তবে বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা না হলেও শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে। গত দু’দিনে আরো অনেক বিদ্যালয়ে পানি উঠেছে বলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম গালিভ খান জানান, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আমরা বন্যা প্লাবিত লোকজনের খোঁজ-খবর নিয়ে ত্রাণ দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। দু-একদিনের মধ্যে বন্যায় আক্রান্তদের চিড়া, মুড়ি ও শুকনা খাবারসহ ত্রাণ সামগ্রী দেয়া হবে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/প্রতিনিধি/আইকে/জাই

 


সর্বশেষ

আরও খবর

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


অবশেষে গ্রেফতার হলো এসআই আকবর

অবশেষে গ্রেফতার হলো এসআই আকবর


অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা


শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন

শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন


জাতীয় পার্টির ‘ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন’ বিরোধী সমাবেশ

জাতীয় পার্টির ‘ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন’ বিরোধী সমাবেশ


চোরের চিরকুট!

চোরের চিরকুট!


সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যার প্রতিবাদে লন্ডনে ‘আমরা সিলেট বাসীর’ মানব বন্ধন

সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যার প্রতিবাদে লন্ডনে ‘আমরা সিলেট বাসীর’ মানব বন্ধন


গালিগালাজের ভয়েস নিজের না দাবি নিক্সন চৌধুরীর

গালিগালাজের ভয়েস নিজের না দাবি নিক্সন চৌধুরীর


এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় চারজনের ছাত্রত্ব বাতিল

এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় চারজনের ছাত্রত্ব বাতিল


মধ্যরাতে গৃহিণীকে তুলে নিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ, আটক ৮

মধ্যরাতে গৃহিণীকে তুলে নিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণ, আটক ৮