Monday, July 25th, 2016
মীর কাসেমের রিভিউ শুনানি ২৪ আগস্ট পুনর্নির্ধারণ
July 25th, 2016 at 12:25 pm
মীর কাসেমের রিভিউ শুনানি ২৪ আগস্ট পুনর্নির্ধারণ

ঢাকা: ফাঁসির রায়ের পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদনের শুনানি পিছিয়ে ২৪ আগস্ট পুনর্নির্ধারণ করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

সোমবার আসামিপক্ষের সময়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে শুনানি পিছিয়ে দেন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ। অন্য বিচারপতিরা হলেন- বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী, বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও মোহাম্মদ বজলুর রহমান।

বর্তমান পরিস্থিতিতে শুনানির জন্য প্রস্তুতি নিতে পারেননি উল্লেখ করে শুনানি পেছাতে দুই মাসের সময়ের আবেদন জানান মীর কাসেম আলীর প্রধান আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এর আগে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ২১ জুন রিভিউ শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন। এর আগে ১৯ জুন মীর কাসেম আলীর আইনজীবীরা রিভিউ আবেদন করেন।

একাত্তর সালের আলবদরের শীর্ষ তৃতীয় নেতা মীর কাসেম আলী। এ ছাড়া ফাঁসি কার্যকর হওয়া জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামী ও সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদের পর মীর কাসেম ছিলেন আলবদর বাহিনীর তৃতীয় প্রধান নেতা।

মীর কাসেম আলীকে আপিল বিভাগ যে সাতটি অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডসহ বিভিন্ন মেয়াদে তাকে কারাদণ্ড দিয়েছেন, তার সব কয়টিতেই খালাস চেয়ে  আবেদন করা হয়। আবেদনে মীর কাসেম আলীকে নির্দোষ দাবি করে ১৪টি যুক্তি তুলে ধরা হয়।

মীর কাসেম আলীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে ২০১৪ সালের ২ নভেম্বর রায় দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি বিভিন্ন মেয়াদে তাকে কারাদণ্ডও দেওয়া হয়। এ রায়ের বিরুদ্ধে ওই বছরের ৩০ নভেম্বর খালাস চেয়ে মীর কাসেম আলী আপিল করেন।

ওই আপিলের ওপর শুনানি শেষে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে কিশোর মুক্তিযোদ্ধা জসিম হত্যার দায়ে মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে চলতি বছরের ৮ মার্চ সংক্ষিপ্ত রায় ঘোষণা করেছিলেন। রায় ঘোষণার এক মাস পরে রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করা হয় গত ৬ জুন। ওই দিনই রায়ের কপি কারাগারে পৌঁছে এবং মীর কাসেম আলীকে মৃত্যু পরোয়ানা পড়ে শোনানো হয়। এরপর তিনি রিভিউ আবেদন করেন।

নিয়ম অনুযায়ী রিভিউ আবেদন করা হলে রায়ের কার্যক্রম স্থগিত থাকে। রিভিউ খারিজ হলে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার জন্য আবেদন করার সুযোগ পাবেন তিনি। রাষ্ট্রপতি প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ করলে যেকোনো সময় সরকার কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে দণ্ড কার্যকর করতে পারবে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এফএইচ/এমএস/এসআই


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ

অবশেষে পাঁচ বছর পর নেপালকে হারালো বাংলাদেশ


মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার

মাইন্ড এইড হাসপাতালে তালা, মালিক গ্রেপ্তার


বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি

বিরোধী নেতাদের কটাক্ষ করতেন না বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি


মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার

মসজিদ-মন্দিরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করলো সরকার


করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি

করোনায় একদিনে আরও ১৮ প্রাণহানি