Thursday, August 11th, 2016
‘মুষ্টিমেয় মানুষের জন্য ধর্মকে দোষ দেওয়া যাবে না’
August 11th, 2016 at 1:42 pm
‘মুষ্টিমেয় মানুষের জন্য ধর্মকে দোষ দেওয়া যাবে না’

ঢাকা: জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে শিক্ষা দিতে উলামাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ইসলাম ধর্ম শান্তির ও সৌহার্দ্যের বাণী নিয়ে এসেছে। কিন্তু কিছু মুষ্টিমেয় মানুষ এই পবিত্র ধর্মকে বিশ্বের কাছে ছোট করেছে। আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ইসলামকে জঙ্গিবাদী বললে আমি সবসময় প্রতিবাদ করতাম। কিন্তু এখন কিছু মানুষের জন্য সেই মুখ আর নেই। তবে মুষ্ঠিমেয় লোকের জন্য আমার পবিত্র ধর্মকে দোষ দেয়া যাবে না।’

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা আয়োজিত ‘ইসলামের দৃষ্টিতে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ এবং আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এক উলামা সম্মেলনে তিনি এই কথা বলেন। পবিত্র কোরান শরীফে সন্ত্রাস ও অশান্তির বিরুদ্ধে কথা বলা হয়েছে উল্লেখ করে এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সেখানে জঙ্গিরা কিভাবে ভাবলো মানুষ খুন করে বেহেশতে যাবে? যারা মানুষ খুন করে তারা ধর্মে বিশ্বাসী নয়, মানবতায় বিশ্বাসী নয়। তাদের স্থান জাহান্নামে হবে।’

এসময় উলামাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে শিক্ষা দিন। সবাই যাতে ইসলাম সম্পর্কে সঠিক শিক্ষা পায় এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে হবে। এটা ভাল খবর যে, সারাদেশব্যাপী জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি হয়েছে। ইসলাম ধর্মকে খাটো করা যাবে না।’

‘ইসলামের দৃষ্টিতে জঙ্গিবাদ কি ও আমাদের কি করণীয় এ সম্পর্কে যে ফতোয়া দিয়েছেন সেজন্য আপনাদের ধন্যবাদ। এর মাধ্যমে আপনারা কোরান ও হাদীসের বক্তব্য জাতির সামনে তুলে ধরেছেন। এটা মহান কাজ। কেননা, এতে ধর্মের প্রতি সাধারণ মানুষের বিশ্বাস ও আস্থা অটুট থাকবে। এভাবে ইসলামের মান ও সম্মান ফিরে আসবে বলে আমি আশা করি’ বলেন প্রধানমন্ত্রী।

সামান্য কয়েকটা লোক ইসলামকে হেয় করতে পারে না মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুঃখ লাগে তখন, যখন সামান্য কিছু লোক এই ধর্মকে ব্যবহার করে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালায়। আমাদের পবিত্র ধর্মকে তারা মানুষের কাছে হেয় করে দিচ্ছে। তারা কোন ইসলামের শিক্ষা নিচ্ছে? যে ইসলাম হলো শান্তির, সৌহার্দ্যের সে ধর্মের নাম ব্যবহার করে সন্ত্রাস চালাচ্ছে, মানুষ হত্যা করছে তারা।’

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/ওয়াইএ


সর্বশেষ

আরও খবর

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার


আবার রক্তক্ষরণ হলে খালেদা জিয়ার মৃত্যুঝুঁকি বাড়বে

আবার রক্তক্ষরণ হলে খালেদা জিয়ার মৃত্যুঝুঁকি বাড়বে


নটরডেম ছাত্রের মৃত্যু: তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন ডিএসসিসির

নটরডেম ছাত্রের মৃত্যু: তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন ডিএসসিসির