Wednesday, April 4th, 2018
মেট্রোরেলের যানজটে চরম ভোগান্তিতে মিরপুরবাসি
April 4th, 2018 at 10:58 pm
মেট্রোরেলের যানজটে চরম ভোগান্তিতে মিরপুরবাসি

সৈয়দ ইফতেখার আলম, ঢাকা: সরকারি একটি ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার মেহজাবীন আক্তার মিরপুরে ফ্ল্যাট কিনতে আগ্রহী ছিলেন। সাধ্যের মধ্যে হওয়ায় ঢাকায় মিরপুরই ছিল তার পছন্দের শীর্ষে। তবে তিনি পিছু হটেছেন। তার কাছ থেকেই শোনা গেলো, কী ছিল মূল সমস্যা, ”ঢাকা শহরের মধ্যে মিরপুরে এখন সব থেকে বেশি মানুষ বাস করে। এখানে যানজাটও তাই বেশি। মেট্রোরেলের কাজ চলছে বিধায় এই সমস্যা আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এমন অবস্থায় এই এলাকায় স্থায়ী ঠিকানা গড়তে সহসে কুলায়নি! এরচেয়ে একটু বেশি অর্থ খরচ করে মোহাম্মদপুর, ইকবাল রোড, বাবর রোডের দিকে যেতে চাচ্ছি।”

মিরপুর-১২ নম্বরের একটু পর থেকেই শুরু মেট্রোরেলের কাজ। সড়কের অনেকখানি জায়গাজুড়ে কাজ হওয়ায় সংকুচিত হয়ে এসেছে পথ। গাড়ি চলে সর্বোচ্চ দুই সারিতে। এতে দীর্ঘ যানজট লেগেই থাকে। আর অফিস যাওয়া আসা কিংবা ভিআইপি যাতায়াতের সময় এই যট যন্ত্রণা অারও মারাত্মক আকার ধারণ করে। এই ভোগান্তি মিরপুর-১১, সাড়ে ১০, ১০, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, তালতলা, আগারগাঁও, সেকেন্ডগেট, বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র পার করে একদম বিজয়স্মরণী মোড় এবং খারামবাড়ী পর্যন্ত। ফলে পুরো সড়কেই এখন যানজট লেগেই থাকে।

কেবল রেল নির্মাণ কাজ নয়, এই কাজ করতে গিয়ে ইউটিলিটি (গ্যাস-পানি-টেলিফোন লাইন) সার্ভিসের স্থানান্তরের জন্যও সমস্যা হচ্ছে। যদিও কর্তৃপক্ষের আহ্বান, উন্নয়েনর বিষফোঁড়া সহ্য করতে চাই ধৈর্য। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক প্রকৌশলী বলেন, রাজধানী ঢাকাকে যানজটমুক্ত করতে এবং নগরবাসীর সময় বাঁচাতে মেট্রোরেলের কাজ চলছে। এটি বানাতে কিছুটা সময় দিতে হবে, সেটুকু সময় ধৈর্য ধরে ভোগান্তি মেনে নিতেই হবে।

আগামীতে কাজের পরিধি আরও বৃদ্ধি পেলে ফার্মগেট, কারওয়ানবাজারের সড়কেও নতুন করে তীব্র যানজট সৃষ্টি হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জানা যায়, সরকার ২০১৯ সালের মধ্যেই মেট্রোরেল লাইন-৬ এর একাংশের কাজ শেষ করতে চায়। তবে সেটি নিয়ে সংশয় পরিবহন বিশেষজ্ঞদের। উত্তরা তৃতীয় প্রকল্প থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত প্রকল্পের কাজ যে গতিতে চলার কথা সেই গতি এখনও পায়নি বলে মত তাদের। এক্ষেত্রে ২০২৪ সালের মধ্যে পুরো কাজ শেষ হওয়ার কথা। সেটিও চরমভাবে বাধাগ্রস্ত হবে। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ২০ দশমিক ১ কিলোমিটার দীর্ঘ মেট্রোরেলের কাজ, সময় মতো কাজ শেষ করতে না পারলে সময় বৃদ্ধি পেয়ে ভোগান্তি আরও বাড়ার শঙ্কা সংশ্লিষ্টদের।

২০১২ সালের ১৮ ডিসেম্বর সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকার মেট্রোরেল প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে অনুমোদন পায়। সেসময় বলা হয়, উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত রেল চালু হলে দুইদিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী পরিবহন করা সম্ভব হবে। থাকবে ১৬টি স্টেশন। পুরো প্রকল্পে ব্যয় হবে ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এর মধ্যে প্রকল্প সহায়তা হিসেবে জাইকা দিচ্ছে ১৬ হাজার ৫৯৪ কোটি ৪৮ লাখ টাকা।

সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার


নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু