Monday, August 15th, 2016
‘মোশতাকের পায়ের নখ থেকে চুল পর্যন্ত ছিল হারামিতে ভরা’
August 15th, 2016 at 8:56 am
‘মোশতাকের পায়ের নখ থেকে চুল পর্যন্ত ছিল হারামিতে ভরা’

ঢাকা: আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমার বাবাকে বলেছিলেন, ‘আমার মতো মোশতাককে বাংলাদেশের আর কেউ চিনে না। মোশতাকের পায়ের নখ থেকে মাথার চুল পযন্ত ছিল হারামিতে ভরা।’

জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির উদ্দ্যেগে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি স্মরণ করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এসব কথা বলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন আইনমন্ত্রীর বাবা মরহুম অ্যাডভোকেট সিরাজুল হক।

তিনি বঙ্গবন্ধুকে বলেছিলেন, ‘খন্দকার মোশতাক তাকে(আইনমন্ত্রীর বাবা)খুন করবে না। খুন করবে বঙ্গবন্ধুকেই।’ তখন বঙ্গবন্ধু তার জবাবে বলেছিলেন, ‘খন্দকার মোশতাকের পায়ের নখ থেকে চুল পর্যন্ত ছিল হারামিতে ভরা। তার মতো  মোশতাককে বাংলাদেশের কেউ চেনে না।’

আনিসুল হক বলেন, সিরাজুল হককে বঙ্গবন্ধু বলেন, ‘শুধু তুই আমার সঙ্গে দেখা করতে আসলে হয়, ভাবীকে নিয়ে আসতে পারিস না।পরে আমার (আইন মন্ত্রীর)মা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে দেখা করেন।’

তখন(আইনমন্ত্রীর)তাদের বাসা মুহাম্মদ পরে গণভবনের ঠিক উল্টো দিকে। বঙ্গবন্ধু একদিন তার পিতাকে গণভবনে যেতে বলেন। বাবার কাছ থেকে শুনেছেন বলে উল্লেখ করে আলোচনা সভায় আইনমন্ত্রী  আরও বলেন, ‘১৯৭৫ সালের  ১ আগস্ট। আমার পিতা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে গণভবনে দেখা করতে যান মাগরিবের নামাজের সময়। সেখানে আগে থেকেই উপস্থিত ছিলেন খন্দকার মোশতাক ও তাহের উদ্দিন ঠাকুর।

আমার পিতা যাওয়ার পর বঙ্গবন্ধু পাশের কক্ষে গেলেন। বঙ্গবন্ধু উঠে যাওয়ার পরপরই আমার বাবাকে মোশতাক বললেন, ‘বঙ্গবন্ধুর কাছ থেকে একটু নামাজ পড়ার অনুমতি নিয়ে দিতে। তখন আমার পিতা মোশতাককে বলেন, ‘নামাজ পড়ার জন্য অনুমতি নেওয়ার দরকার আছে কি। আপনারা যদি নামাজ পড়বেন তাহলে আপনারাই অনুমতি চান না কেন? পরে বঙ্গবন্ধু আসার পর মোশতাকদের নামাজ পড়ার জন্য যেতে বললেন।’

আনিসুল হক আরও বলেন, ‘তারা দুজন নামাজ পড়ার জন্য চলে যাওয়ার পর বঙ্গবন্ধু ও আমার(আইনমন্ত্রীর) পিতা কথা বলাবলি করেন। বঙ্গবন্ধু আমার পিতাকে বললেন, তার(বঙ্গবন্ধুর)কাছে সুনির্দিষ্ট খবর আছে যে, খন্দকার মোশতাক আমার পিতাকে মেরে ফেলতে পারে।’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আমার আব্বা হজম করে নিয়ে বললেন, যদি এ রকম খবর থাকে তাহলে আমাকে না তোমাকে (বঙ্গবন্ধুকে) মারবে? তার কারণ হচ্ছে, আমাকে মারলে তার একটা বুলেটেরও দাম উঠবে না। তোমাকে মারবে।’

 বঙ্গবন্ধু তখন বলেছিলেন , ‘খন্দকার মোশতাকের পায়ের নখ থেকে মাথার চুল পর্যন্ত হারামিতে ভরা। ওকে বাংলাদেশের কেউ চেনে না আমি ছাড়া।’ তারপরে আমি দেখেছি, আগস্ট মাসের ১ তারিখ থেকে ১২ তারিখ পর্যন্ত অন্তত পাঁচবার এসেছিলেন শুধু জানার জন্য, বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সেদিন আমার পিতার কী কথা হয়েছিল।’

বঙ্গবন্ধুর খুনের কারণ সম্পর্কে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘আপনারা জানেন, খন্দকার মোশতাক সাহেব টুপি পরতেন। এই টুপির নাম মোশতাক টুপি। পাকিস্তান না রাখতে পারার কারণে সাংঘাতিক মনঃকষ্টে ছিল টুপি পরা মোশতাক সাহেব। তাই তিনি ষড়যন্ত্র করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে পরিবারের সব সদস্যসহ হত্যা করেছেন।’

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এফএইচ/এসআই


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু

করোনায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু


বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত ব্যারিস্টার রফিক-উল হক


সাগরে ৪ নম্বর সংকেত, বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে আরও দুই দিন

সাগরে ৪ নম্বর সংকেত, বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে আরও দুই দিন


দু-তিন দিনের মধ্যে আলুর দাম কমবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

দু-তিন দিনের মধ্যে আলুর দাম কমবে: বাণিজ্যমন্ত্রী


সারা দেশের নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার

সারা দেশের নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার


অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

অতিরিক্ত মূল্যে আলু বিক্রির দায়ে বরিশালে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা


করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের

করোনায় প্রাণ গেল আরও ২১ জনের


মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে নির্দেশ মন্ত্রিসভার

মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে নির্দেশ মন্ত্রিসভার


ভোট সুষ্ঠু হয়েছে; দাবি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের

ভোট সুষ্ঠু হয়েছে; দাবি প্রধান নির্বাচন কমিশনারের


বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার খসড়া তালিকায় গ্লোব বায়োটেকের ভ্যাকসিন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার খসড়া তালিকায় গ্লোব বায়োটেকের ভ্যাকসিন