Saturday, February 25th, 2017
যানজট নিরসনে অনন্য উদ্যোগ
February 25th, 2017 at 5:36 pm
যানজট নিরসনে অনন্য উদ্যোগ

এম কে রায়হান, ঢাকা: ব্যস্ত শহর ঢাকাকে যানজটমুক্ত করতে অনন্য এক উদ্যোগ নিয়েছেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক আরাফাত নোমান। প্রতিমাসের শেষ বুধবার ঢাকায় ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার থেকে বিরত থাকলে সপ্তাহে অন্তত একদিন যানজটমুক্ত থাকবে ঢাকা শহর।

যানজট নিরসনের জন্য ২০০৭ সালে চীন এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল। সপ্তাহে একদিন সবাই ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার না করায় ওইদিন লক্ষণীয় ভাবে যানজট কমে যায় চীন এবং ইউরোপের ওই সকল দেশগুলোতে। এই উদ্যোগের নাম দেয়া হয়েছিল ‘নো কার ডে’।

সেই কথা মাথায় রেখেই ২০১৬ সালে বাংলাদেশেও ‘নো কার ডে’ পালন শুরু হয়েছে। বাংলাদেশে এর প্রচলন শুরু করেন আরাফাত নোমান।

২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তিনি তার শিক্ষার্থী, বন্ধু, সহকর্মী ও প্রিয়জনদের সঙ্গে নিয়ে শুরু করেন এই ‘নো কার ডে’। তার এই প্রচারণার মূল উদ্দেশ্য ছিল প্রতি মাসের শেষ বুধবারটিতে শহর যাতে যানজটমুক্ত থাকে। এই উদ্যোগের এক বছর পূর্ণ হলো গত ২২ ফেব্রুয়ারি বুধবার।

এ বিষয়ে আরাফাত নোমান নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘ঢাকা বাংলাদেশের রাজধানী হওয়ায় সবসময় এখানে প্রচুর মানুষের চাপ থাকে। আর তাই সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মানুষকে অসহনীয় যানজটের সম্মুখীন হতে হয়। যানজট নিয়ন্ত্রণে বহির্বিশ্বে একটি বিশেষ ব্যবস্থা চালু আছে যে সপ্তাহে একদিন তারা তাদের ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করবেন না। এতে ওইদিন যানজট অনেকটা নিয়ন্ত্রেণে থাকে। সেখান থেকেই আমার এ প্রাচারণা শুরু। প্রথমে শুধু আমরা একা করলেও এবার আমাদের সাথে আরো ৬টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন একাত্মতা প্রকাশ করেছে এবং আমাদের সাথে কাজ করেছে। আমরা বিশ্বাস করি এটা যদি সবাই পালন করে তাহলে অন্তত একটা দিন ঢাকাবাসী যানজট থেকে রেহাই পাবে।’

প্রথম বর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশে ‘নো কার ডে’ উদ্যোগের সঙ্গে সম্পৃক্তরা রাজধানীর হাতিরঝিলে রাস্তার দুইপাশে ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালায়। এদিনে ‘নো কার ডে’র সঙ্গে যে ৬টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন একাত্মতা প্রকাশ করে তারা হলো অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, রানার বাংলাদেশ সোসাইটি, অহনিশ ফিল্মস, হেল্প দ্য ফিউচার, মিরপুর রাইডার্স এবং হেল্পিং হ্যান্ডস।

এ বিষয়ে অভিযাত্রিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা আহমেদ ইমতিয়াজ জামী বলেন, ‘ঢাকা শহরে জায়গার তুলনায় মানুষ বেশি হওয়া এবং নানা অব্যবস্থার কারণে প্রতিনিয়ত সাধারণ জনগণকে রাস্তায় দুর্ভোগ পোহাতে হয়। দিনের অনেক মূল্যবান কর্মঘণ্টা নষ্ট হয় এই রাস্তাতেই। মাসে অন্তত একদিন যদি সবাই এই পদ্ধতি অবলম্বন করে তাহলে অন্তত ওইদিনটি রাস্তায় মানুষ একটু স্বস্তিতে থাকবে।’

সম্পাদনা: জাহিদ


সর্বশেষ

আরও খবর

বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৫

বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৫


উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন


দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল


টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন