Wednesday, September 28th, 2016
যুক্তরাষ্ট্রসহ ১২৫টি দেশে ঔষধ রফতানি করছে বাংলাদেশ
September 28th, 2016 at 7:31 pm
যুক্তরাষ্ট্রসহ ১২৫টি দেশে ঔষধ রফতানি করছে বাংলাদেশ

ঢাকা: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বাংলাদেশে উৎপাদিত ঔষধ ও এর কাঁচামাল যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বের ১২৫ দেশে রফতানি করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ঔষধ শিল্পে জিএমপি অনুশীলনে অগ্রগতি ও উৎপাদিত ঔষধ আন্তর্জাতিক মান-সম্পন্ন বিধায় রফতানি আগামী দিনে আরো বাড়বে।

বুধবার স্বতন্ত্র সদস্য মোঃ আব্দুল মতিনের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ঔষধ আমদানিকারক দেশের পরিবর্তে রফতানিকারক দেশ হিসেবে গৌরব অর্জন করেছে। দেশীয় চাহিদার শতকরা প্রায় ৯৮ ভাগেরও বেশি ঔষধ বর্তমানে স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত হয়।

নাসিম বলেন, বাংলাদেশে উৎপাদিত ঔষধ বিদেশে রফতানির লক্ষ্যে উৎপাদনকারীদের উৎসাহ বৃদ্ধিকল্পে সরকার বদ্ধপরিকর। সরকার এ ব্যাপারে উৎপাদনকারীদের প্রতিনিয়ত সুবিধাদি প্রদান করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার ঔষধের রফতানির বাজার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে দেশের ঔষধ শিল্প সমিতি, রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বৈদেশিক মিশন, ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহের সাথে যৌথভাবে বিষয়টি নিয়ে মত বিনিময়সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা তৎপর রয়েছে।

তিনি বলেন, এছাড়া ঔষধ রফতানির সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে সরকারের তরফ থেকে বিভিন্ন দেশে প্রতিনিধি পাঠানোর মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের উচ্চ পর্যায়ের নীতি নির্ধারকগণের সঙ্গে মতবিনিময়কালেও ঔষধ রফতানির বিষয়টি তুলে ধরা হচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে রফতানি বাজারের উজ্জ্বল সম্ভাবনা সৃষ্টি হওয়ায় ঔষধ প্রশাসন থেকে রফতানির ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সকল কর্মকাণ্ড সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সম্পন্ন করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ঔষধ প্রস্তুতকারী কারখানাগুলোকে সরকারে পক্ষ থেকে সহায়তা প্রদান অব্যাহত রয়েছে। ঔষধ শিল্পের সামগ্রিকভাবে আত্মনির্ভশীল হওয়ার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে সরকার ঢাকা অদূরে মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়ায় ঔষধের কাঁচামাল তৈরির জন্য একটি এপিআই পার্ক স্থাপনের কাজ শেষ পর্যায়ে।

তিনি বলেন, এপিআই পার্কে শিগগিরই ঔষধের কাঁচামাল উৎপাদন শুরু করা সম্ভব হবে। ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশে উৎপাদিত ঔষধের কাঁচামাল বাংলাদেশের চাহিদা মিটিয়ে আন্তর্জাতিক বাজারেও রফতানি করা সম্ভব হবে।

মন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর অনেক দেশে ঔষধ রফাতনিকারকদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। বাংলাদেশে ঔষধ রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানসমূহকে একই ধরনের সহায়তা প্রদানের বিষয়টি সরকারের সক্রিয় বিবেচনায় রয়েছে।

সরকারি দলের সদস্য মোঃ ইসরাফিল আলমের অপর এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে ঔষধ প্রস্তুতকারী কারখানাগুলোর কার্যক্রম এবং তাদের উৎপাদিত ঔষধের গুণগতমান নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকারের বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ চলমান রয়েছে। ঔষধ প্রস্তুতকারী কারখানাগুলোর কার্যক্রম ও গুণগত মান নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে মন্ত্রণালয়ের অধীন ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর রয়েছে।

তিনি বলেন, জীবন রক্ষাকারী নকল ঔষধ উৎপাদন ও বিক্রয়কারীদের বিরুদ্ধে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের প্রধান কার্যালয় ও জেলা পর্যায়ে কর্মরত কর্মকর্তাগণ প্রতিদিন ঔষধের নকল বা ভেজাল বিরোধী অভিযান পরিচালনা করছে।

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা- জাহিদুল ইসলাম


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে


গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

গণপরিবহন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী


২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫

২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ৩৬৩, মৃত্যু ২৫


২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

২৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ

ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ


সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া

সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া


আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে শেষ মুহূর্তেও ভিড়

পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে শেষ মুহূর্তেও ভিড়


ঈদের দিন হতে পারে হালকা বৃষ্টি

ঈদের দিন হতে পারে হালকা বৃষ্টি