Wednesday, October 5th, 2016
‘যুদ্ধাপরাধী এবং বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সম্পদের মালিক হবে সরকার’
October 5th, 2016 at 2:26 pm
‘যুদ্ধাপরাধী এবং বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সম্পদের মালিক হবে সরকার’

ঢাকা  মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্তদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার পর তার মালিক সরকার হবে বলে মন্তব্য করেছেন আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন কমিটির আহ্বায়ক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী  শাজাহান খান এম.পি।

একই সঙ্গে বাংলাদেশের স্থপতি জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার পরও ওই সম্পদের মালিক হবে সরকার।

বুধবার সকালে সেগুনবাগিচাস্থ স্বাধীনতা হলে ডিআরইউ ভবনের ৩য় তলায় সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। জাতির সকল দূর্যোগে দেশের গণমাধ্যমকর্মীগণ যে নিরলস ভূমিকা পালন করেন তা অনস্বীকারর্য। ভবিষ্যতেও যেকোন ধরনের জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ এবং  যুদ্ধপরাধীদের বিরুদ্ধে আপনাদের সহযোগীতা কামনা করছি।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরও বলেন, যুদ্ধাপরাধের দায়ে শুধু মাত্র জামায়াত ইসলামী, বিএনপির নেতাকর্মীদের সম্পদিই বাজেয়াপ্ত করা হবে না। সঙ্গে সঙ্গে আওয়ামীলীগের কোনও নেতা যদি যুদ্ধাপরাধী হয় তার সম্পদও বাজেয়াপ্ত করা হবে।

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী ও যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার বিষয়ে  জাতীয় সংসদে সিদ্ধান্ত প্রস্তাব গৃহীত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন”

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী শাহজাহান খান ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মাহাবুব উদ্দিন বীর বিক্রম, ইসমত কাদির গামা, আলাউদ্দিন মিয়া, আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলনের সহ সদস্য সচিব রোকেয়া প্রাচী, কামরুল আলম সবুজ। এছড়া্র আরও উপস্থিত ছিলেন আব্দুল মালেক মিয়া, মোঃ কামাল উদ্দিন, বদরুদ্দোজা নিজাম, কামরুল আনাম, মহসিন ভূইয়া, আবুল হোসন, রেজাউল করিম রেজা, শাহজালাল মিঞাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে যে দাবিসমূহ সরকারের দৃষ্টি আকর্ষন করা হয়েছে।

১। ৭১ এ পাক বাহিনী কর্তৃক বাংলাদেশে সংগঠিত গনহত্যা, লুন্ঠন, অগ্নিসংযোগসহ নির্যাতনের কারণে পাকিস্তানের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ আদায় করা।

২। যাদেরকে পাকিস্তানিরা ‘সাচ্চা পাকিস্তানি’ বলে দাবী করছে তাদের নাগরিকত্ব বাতিল ও তাদের স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা।

৩। স্বাধীনতা বিরোধী, যুদ্ধাপরাধী,সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, গুপ্তহত্যাকারী, জঙ্গী, সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে আর্থিক যোগানদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো চিহ্নিত করে তা জাতীয়করণ করা এবং আর্থিক যোগানদাতা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ শাস্তির ব্যবস্থা করা।

৪। পাকিস্তানের কূটনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত আচরনের বিষয়টি বাংলাদেশ সরকারকে বিশেষ বিবেচনায় নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা।

উপরোক্ত দাবিসমূহের অনুমোদন এবং পূর্নাঙ্গ আইনে রূপান্তর করার জন্য সরকার আহবান জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা এসকল দাবী নিয়ে ‘আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন’ আরও জোরগতিতে আন্দোলন চালিয়ে যাবে।

যতদিন না জঙ্গী ও সন্ত্রাস রাষ্ট্র ‘পাকিস্তান’ এর চর জামাত-শিবির-রাজাকারদের প্রতিষ্ঠাতা বিএনপির ষড়যন্ত্রমূলক রাজনীতির হাত থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত না হয়, যতদিন না বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক চেতনার স্বপ্নের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত না হয়, ততদিন পর্যন্ত পাকিস্তানের সকল চক্রান্ত প্রতিহত করে, পাকিস্তানি চর, জামাত-শিবির-রাজাকার, আলবদর সৃষ্ট জঙ্গী ও সন্ত্রাসীদের নির্মূল করে বাংলাদেশকে ষড়যন্ত্রমুক্ত করার লক্ষ্যে সংগঠনের সংগ্রাম ও কর্মসূচী অব্যহত থাকবে।

প্রতিবেদক: ফজলুল হক, সম্পাদনা: শিপন আলী


সর্বশেষ

আরও খবর

গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা

গাজায় হামাস প্রধানের বাড়িতে ইসরায়েলের বোমা হামলা


ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ

ঈদের ছুটি শেষে করোনা ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফিরছে মানুষ


সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া

সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন, করোনামুক্তিতে বিশেষ দোয়া


আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে একদিনে সর্বোচ্চ টোল আদায়ের রেকর্ড


পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে শেষ মুহূর্তেও ভিড়

পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটে শেষ মুহূর্তেও ভিড়


ঈদের দিন হতে পারে হালকা বৃষ্টি

ঈদের দিন হতে পারে হালকা বৃষ্টি


হুমকি উপেক্ষা করে আল-আকসায় ঈদের নামাজে মুসল্লিদের ঢল

হুমকি উপেক্ষা করে আল-আকসায় ঈদের নামাজে মুসল্লিদের ঢল


করোনায় আরও ৪০ জনের মৃত্যু

করোনায় আরও ৪০ জনের মৃত্যু