Thursday, July 7th, 2016
যেভাবে কেটেছে জারিফের ঈদ
July 7th, 2016 at 5:34 pm
যেভাবে কেটেছে জারিফের ঈদ

শরীফ খিয়াম, ঢাকা: গত বছরও ঈদের দিন বাবা, মা, ভাই – সবই ছিলো তার। কিন্তু এবার আর কেউ নেই। নিকটতম ওই পরম আত্বীয়দের ছাড়াই ঈদ উৎসব কাটাতে হচ্ছে তাকে। বলছিলাম জারিফ বিন নেওয়াজের কথা। চিনতেন পারছেন কী? নাকি শত ইস্যুর আড়ালে স্মৃতি থেকে হারিয়েই গেছে নামটি?

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে উত্তরায় গ্যাসের চুলা ও লাইনের বিস্ফোরণের এক পরিবারের পাঁচ জন অগ্নিদগ্ধ হওয়ার খবরটি মনে আছে নিশ্চয়ই। পোড়া হাত-পা নিয়ে ওই পরিবারের শেষ চিহ্ন হিসেবে বেঁচে রয়েছে এই জারিফ। নিহত প্রকৌশলী শাহনেওয়াজের (৫০) ও সুমাইয়া বেগমের (৪০) মেঝ সন্তান, ১১ বছরের কিশোর।

জারিফের বাবা শাহনেওয়াজ ছিলেন মার্কিন দূতাবাসের প্রকৌশলী। গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের আট নম্বর বাড়ির সাত তলায় ভাড়া নেয়া এক ফ্ল্যাটে ওঠেন তারা। এর ক’দিন পরই, ২৬ ফেব্রুয়ারি সকালে তার মা সুমাইয়া খানম রান্না ঘরে দেশলাইয়ের কাঠি জ্বালাতেই পুরো ঘরে আগুন ধরে যায়। এতে বাবা শাহনেওয়াজ (৫০), মা সুমাইয়া বেগম (৩৫), বড় ভাই সালীন (১৫) ও ১৪ মাস বয়সী ছোট ভাই জায়ান মারাত্মক দগ্ধ হন।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনার পরপরই মারা যায় জারিফের দুই ভাই। একদিন পর মারা যান বাবা। শরীরের ৯০ শতাংশ পোড়া নিয়ে নয় দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে মারা যান মা। দগ্ধ হয়েছিলো জারিফও। আগুনে তার ডান পায়ের হাঁটুর নিচ থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত পুড়ে গিয়েছিলো। আরো পুড়েছিলো ডান হাত আর বাঁম পায়ের নিচের অংশ। তার ডান হাত ও পায়ে অস্ত্রোপচার হয়েছে। ঘটনার ৫২ দিন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়েছে সে।

বর্তমানে বরিশাল নগরীর কলেজ এভিনিউয়ের লেচুশাহ্ সড়কের মুনিরা মঞ্জিলে খালা তাসলিমা বেগমের বাসায় থাকছে জারিফ। খালা-খালুর সাথেই কেটেছে তারা এবারের ঈদ। বৃহস্পতিবার বিকেলে নিউজনেক্সট ডটকম’কে তাসলিমা জানান, সকালে ঈদের নামাজ পরে জারিফ। এরপর ঝালকাঠীতে দাদা বাড়িতে গিয়ে বাবার কবর জেয়ারত করে। সেখান থেকে বরিশাল ফিরে শহরের তাবলীগ মার্কাজ মসজিদ কবরস্থানে মা ও দুই ভাইয়ের কবরের পাশে সময় কাটায়, দোয়া-মোনাজাত জেয়ারত করে। এরপর নবগ্রাম এলাকায় নানা বাড়িতে কিছুক্ষণ সময় কাটিয়ে বিকেলে ফের খালার বাসায় ফেরে। পুরোটা সময়ে জারিফের সাথে ছিলেন তার খালু, অর্থাৎ তাসলিমা বেগমের স্বামী।

জানা গেছে, এবার মামা, খালা, চাচা, ফুপুসহ বিভিন্ন স্বজনদের কাছ থেকে ঢের ঈদ উপহার পেয়েছে জারিফ। তবু তার চোখের বিষাদ কাটেনি। স্বজনদের কবরের কাছে গিয়ে সে কান্নায় ভেঙে পরেছে। নিউজনেক্সট ডটকম’র প্রশ্নের তাসলিমা আরো জানান, ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে জারিফ। তার জন্য একজন গৃহশিক্ষক রাখা হয়েছে। আগামী বছর তাকে বরিশালের ভালো কোনো স্কুলে ভর্তি করানো হবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের জুলাই থেকে চলতি বছরের জানুয়ারি অবধি রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে কমপক্ষে ২৭ জন দগ্ধ হন। এর মধ্যে হাজারীবাগের গজমহলে গ্যাস লাইনে বিস্ফোরনে তিন জন, মিরপুরে টিনসেড বাড়িতে ছয় জন, আজিমপুর স্টাফ কোয়ার্টারে দুই জন, কলাবাগান লেকসার্কাস রোডের একটি বাসায় সাত জন ও কাফরুলে নয় জন আহত হয়েছিলেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের বেশ কয়েকজন মারাও গিয়েছেন।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসকে


সর্বশেষ

আরও খবর

দ. আফ্রিকা: গুলিতে নিহত বাংলাদেশি দোকানি, সর্বহারা দেড় শতাধিক

দ. আফ্রিকা: গুলিতে নিহত বাংলাদেশি দোকানি, সর্বহারা দেড় শতাধিক


শিয়াল ও জোনাকি যুগ

শিয়াল ও জোনাকি যুগ


আইসক্রিম সেলার

আইসক্রিম সেলার


গার্ডিয়ান এঞ্জেল সরিয়ে জেমস বন্ডের কুরুস্থাপন

গার্ডিয়ান এঞ্জেল সরিয়ে জেমস বন্ডের কুরুস্থাপন


দ্য ডেইলি হিলারিয়াস বাস্টার্ডস

দ্য ডেইলি হিলারিয়াস বাস্টার্ডস


প্রধানমন্ত্রীপরিচয়ে তাজউদ্দীন ইন্দিরার সমর্থন আদায় করেন যেভাবে!

প্রধানমন্ত্রীপরিচয়ে তাজউদ্দীন ইন্দিরার সমর্থন আদায় করেন যেভাবে!


আসামে বন্দী রোহিঙ্গা কিশোরীকে কক্সবাজারে চায় পরিবার

আসামে বন্দী রোহিঙ্গা কিশোরীকে কক্সবাজারে চায় পরিবার


ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক

ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক


দক্ষ লেখক, রাজনীতিক; ক্ষমতার দাবা খেলোয়াড়ের মৃত্যু

দক্ষ লেখক, রাজনীতিক; ক্ষমতার দাবা খেলোয়াড়ের মৃত্যু


সমাজ ব্যর্থ হয়েছে; নাকি রাষ্ট্র ব্যর্থ হয়েছে?

সমাজ ব্যর্থ হয়েছে; নাকি রাষ্ট্র ব্যর্থ হয়েছে?