Tuesday, August 2nd, 2016
রামকিংকর’র প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি
August 2nd, 2016 at 4:45 pm
রামকিংকর’র প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি

ডেস্কঃ শ্রীমান ঋত্বিক কুমার ঘটক, ভাস্কর রামকিংকর বেইজ কে, তার বিখ্যাত গান্ধী শিরোনামের শিল্পকর্ম নিয়ে জিজ্ঞাস করেছিলেন, “আচ্ছা কিংকর দা, এই যে গান্ধীজি’র পায়ের তলায় এই নরকঙ্কালের মুন্ডুটার মানে কি?” উত্তরে রামকিংকর বলেছিলেন, “ওটার মানে সহজ। যুগ যুগান্তর ধরে এই লোকগুলা পায়ের তলায় পড়ে আছে। আজকে এই বুড়োর পায়ের তলায় তাই দেখানো হয়েছে”।

রামকিংকর বেইজ আধুনিক ভারতীয় ভাষ্কর্যশিল্পের অন্যতম পথিকৃত। রামকিঙ্কর বেইজ ব্রিটিশ ভারতের বাংলা প্রেসিডেন্সির বাঁকুড়া জেলার যুগীপাড়ায় (পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য) এক সাঁওতাল পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন ২৫ মে, ১৯০৬ সালে। তার পদবী বেইজ, সংস্কৃত বৈদ্য ও প্রাকৃত বেজ্জ-র পরিবর্তির রূপ।

মধ্যকৈশোরে রামকিঙ্কর অসহযোগ আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী স্বাধীনতা সংগ্রামীদের ছবি আঁকতেন। ১৯২৫ সালে ‘প্রবাসী’ পত্রিকার সম্পাদক রমানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের প্রচেষ্টায় তিনি বিশ্বভারতীর কলাভবনে ভর্তি হন। সেখানে নন্দলাল বসু ও রবীন্দ্রনাথের তত্ত্বাবধানে তার শিল্পশিক্ষা বিশেষ মাত্রা লাভ করে এবং পরবর্তীতে এখানেই শিক্ষকতা শুরু করেন।

  3298380375_01f96ff260_b  dandi-march246654_10150264710772498_7004372_n

তিনি প্রতীচ্যের শিল্পভাষাকে আত্মস্থ করে তার সৃষ্টিকর্মে ব্যবহার করেছেন। ভারতীয় শিল্পকলার আধুনিকতার পুরোগামী শিল্পী হিসেবে তাকে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। তিনি এমন এক সময় শিল্পচর্চা শুরু করেন যখন ভারতীয় শিল্পকলা ক্রমান্বয়ে আধুনিকতার দিকে ঝুঁকে পড়তে শুরু করেছে। তাই তার শিল্পকর্ম ভারতীয় শিল্প-ইতিহাসের দিশা জাগানিয়া হিসেবে বিবেচিত। মানুষের মুখ, অভিব্যক্তি, তাদের শরীরের ভাষা নাটকীয় ভঙ্গিতে প্রকাশ দেখা যাবে তার শিল্পকর্মে। আধুনিক পাশ্চাত্য শিল্প, প্রাচীন ও আধুনিক ভারতীয় ধ্রপদী চিত্রকর্ম তার শিল্পের জগত আলো করে রেখেছে। টেরাকোটা রিলিফ ও পাথর খোদাইয়ের পাশাপাশি তিনি জল ও তেলরঙে বিশেষ পারদর্শি। শিল্প নির্মাণে তিনি দেশজ উপাদানের প্রাধান্য দিয়েছেন। তার ভাস্কর্য গতি ও প্রাণপ্রাচুর্যের আধার। ভারতীয় ভাস্কর্যের বিমূর্ত রূপরীতির প্রথম পরীক্ষক ও -নিরীক্ষক ছিলেন রামকিঙ্কর। তার ভাস্কর্য গতিশীল, ছান্দিক ও প্রতিসম যার সাথে প্রকৃতির একটি আত্মিক যোগাযোগ খুঁজে পাওয়া যায়। ভারতীয় ভাস্কর্যের চারিত্র্য নির্মাণে রামকিঙ্করের বিশেষ ভূমিকা অনস্বীকার্য। তিনি তার শিল্পকর্মে সাঁওতালদের জীবন ও কর্মের প্রতিফলন ঘটিয়েছেন পাশ্চাত্য প্রকাশবাদী ঢঙে। তার ভাস্কর্য ও চিত্রকলার কোনোটিই তার সময়ের প্রচলিত ভারতীয় রূপরীতির অনুসারী নয়। সেগুলো তার নিজস্ব ভাবনার ঋদ্ধ প্রকাশ। শিল্পী কে জি সুব্রামনিয়াম তার সম্পর্কে বলেছেন, “সম্ভবত তিনি প্রথম ভারতীয় ভাস্কর যাকে সৃষ্টিশীল ভাস্করের খেতাব দেয়া যায়, তিনি ফরমায়েশকারীর চাহিদা মেটাতে নয় বরং নিজের আনন্দের জন্য ভাস্কর্য নির্মাণ করতেন”। তার বড় ভাস্কর্যগুলোর প্রায় সবই শান্তিনিকেতনে সংরক্ষিত রয়েছে যেগুলোর মধ্যে “সাঁওতাল পরিবার” অন্যতম। এতে তিনি ত্রিমাত্রিক গঠনে একটি সাঁওতাল দম্পতি এঁকেছেন। নারীটির বাঁ-কাঁখে একটি শিশু, পুরুষটির কাঁধে থাকা বাঁশের বাঁকের সামনের দিকে আরেকটি শিশু, আর পাশে একটি কুকুর। ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে থাকা শরীরগুলো ঘনিষ্ঠ পারিবারিক সম্পর্কের বাঁধনে জড়িয়ে আছে বোঝা যায়। প্রকৃত শরীরী আকার থেকে সেগুলো প্রায় দেড়গুণ উচ্চতা সম্পন্ন।

ভোগ বিলাসের এই সমাজ ব্যবস্থায় তার জীবন কেটেছে হতদরিদ্রের ভূমিকায়। ঋত্বিক ঘটক একবার তার ঘরের ভাঙ্গা চাল নিয়ে তার কাছে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তখন হাসতে হাসতে রামকিংকর বলেছিলেন, “বড় বড় ক্যানভাস দিয়ে জল পড়া আটকাতাম, কিন্তু এক্সিবিশনের জন্য যে ওগুলো বের করতে হল”।

সদা খেয়ালী, আপন ভুবনে আপনার রঙ মাখিয়ে ক্যানভাসের পর ক্যানভাস আঁকা রামকিংকর, জীবনে টিকে থাকার চিরন্তন যুদ্ধের দৃঢ় লড়াকু ভাষ্কর রামকিংকর বেইজ ১৯৮০ সালের ২ আগস্ট রাত সাড়ে বারোটায় মহাকালের সাথে মিলিত হন। জীবনের দীর্ঘ সময় তিনি যেখানে কাটিয়েছিলেন সেই শান্তিনিকেতনেই রচিত হয় তার শেষ শয্যা।

আমাদের পক্ষ থেকে এই মহান স্রষ্টার প্রতি রইল বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালবাসা।

নিউজনেক্সটবিডিডটকম/বিজা/এসকেএস/তুসা


সর্বশেষ

আরও খবর

বীর উত্তম সি আর দত্ত আর নেই, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক

বীর উত্তম সি আর দত্ত আর নেই, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


সংগীতের ভিনসেন্ট নার্গিস পারভীন

সংগীতের ভিনসেন্ট নার্গিস পারভীন


সিরাজগঞ্জে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে কামাল লোহানীকে

সিরাজগঞ্জে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে কামাল লোহানীকে


জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান আর নেই

জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান আর নেই


ওয়াজেদ মিয়ার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ওয়াজেদ মিয়ার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ


একুশে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পুরষ্কার তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

একুশে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পুরষ্কার তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী


প্রধানমন্ত্রীর হাতে রান্না করা খাবার সাকিবের বাসায়

প্রধানমন্ত্রীর হাতে রান্না করা খাবার সাকিবের বাসায়


জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী আজ

জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী আজ


জাপানে হেইসেই যুগের অবসান হচ্ছে আজ

জাপানে হেইসেই যুগের অবসান হচ্ছে আজ


হাঁটাহাঁটি করছেন ওবায়দুল কাদের

হাঁটাহাঁটি করছেন ওবায়দুল কাদের