Tuesday, October 9th, 2018
রায় ঘিরে সর্বোচ্চ সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
October 9th, 2018 at 11:20 pm
রায় ঘিরে সর্বোচ্চ সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

ঢাকা: একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে বুধবার। গুরুত্বপূর্ণ এ রায়কে কেন্দ্র করে নাশকতার আশঙ্কায় রাজধানীসহ দেশজুড়ে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থানে রয়েছে আইন-শৃ্ঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়কে কেন্দ্র করে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ইতোমধ্যে সারাদেশে বিশেষ নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

বুধবার পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরান কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনের ‘লাল দালান’ হিসেবে পরিচিত হালকা খয়েরি রঙের দোতলা ভবনেই আলোচিত এই মামলার রায় ঘোষণা করা হবে। রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে ১০ অক্টোবর এখানে থাকবে কয়েকস্তরের আলাদা নিরাপত্তাবলয়।

এদিকে, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাজধানী ঢাকার প্রবেশমুখের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে র‌্যাব-পুলিশের অর্ধশতাধিক চেকপোস্টের মাধ্যমে তল্লাশি কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। জোরদার করা হয়েছে টহল ব্যবস্থাও। রায়ের দিন সকাল থেকেই রাজধানীর বিশেষ স্থাপনা এবং গুরুত্বপূর্ণ সড়কে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন থাকবে, প্রস্তুত থাকবে সাজোয়া যান ও জলকামান।

গ্রেনেড হামলা মামলার আসামিদের গাজীপুরের হাই সিকিউরিটি কারাগার এবং কাশিমপুর ১ ও ২নং কারাগারে রাখা হয়েছে। তাই এ তিন কারাগারে নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে। রায়ের দিন আসামিদের বহনকারী প্রিজন ভ্যানের সামনে-পেছনেও থাকবে বাড়তি নিরাপত্তা।

মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, দেশের জনগণ এ মামলার রায়ের জন্য অধীর আগ্রহে রয়েছে। ওই নৃশংস গ্রেনেড হামলার বিচার মানুষ দেখতে চায়। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে দেশে কোনো বিশৃঙ্খলার আশঙ্কা নেই।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি নাশকতার চেষ্টা করলে ছাড় দেয়া হবে না। তিনি বলেন, বিএনপি এই মামলার রায় নিয়ে যদি কোন সমস্যা তৈরি করতে চায়, সহিংসতা ও নাশকতা করতে চায়, সেটাকে কোন প্রকার ছাড় দেওয়া হবে না। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমরা জানি এ রায় নিয়ে তারা এখন বড় ধরনের নাশকতা ও সহিংসতার পরিকল্পনা নিচ্ছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

বেশি গ্রাহক এসেছে রবিতে, বেশি বদল গ্রামীণফোনে

বেশি গ্রাহক এসেছে রবিতে, বেশি বদল গ্রামীণফোনে


পদত্যাগ করলেন জাতিসংঘের মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি

পদত্যাগ করলেন জাতিসংঘের মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি


বরিশালে হবে দ্বিতীয় পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র: শেখ হাসিনা

বরিশালে হবে দ্বিতীয় পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র: শেখ হাসিনা


ইয়াবা পরিবহনে সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড

ইয়াবা পরিবহনে সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ড


খালেদা জিয়ার বাম হাত বেঁকে গেছে, বাম কাঁধ নাড়াতে পারেন না: চিকিৎসক

খালেদা জিয়ার বাম হাত বেঁকে গেছে, বাম কাঁধ নাড়াতে পারেন না: চিকিৎসক


লুটেপুটে খায় এমন প্রার্থীদের বর্জন করুন: রাষ্ট্রপতি

লুটেপুটে খায় এমন প্রার্থীদের বর্জন করুন: রাষ্ট্রপতি


আপিল বিভাগে নতুন তিন বিচারপতি

আপিল বিভাগে নতুন তিন বিচারপতি


নেপালকে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

নেপালকে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ


অরল্যান্ডোতে ঈদ পুনর্মিলনী সন্ধ্যা উদযাপিত

অরল্যান্ডোতে ঈদ পুনর্মিলনী সন্ধ্যা উদযাপিত


মন্ত্রণালয়ের স্টিকারযুক্ত গাড়িতে অস্ত্র-ইয়াবা, আটক ২

মন্ত্রণালয়ের স্টিকারযুক্ত গাড়িতে অস্ত্র-ইয়াবা, আটক ২