Monday, April 10th, 2017
লাগামহীন চালের বাজার
April 10th, 2017 at 8:56 am
লাগামহীন চালের বাজার

এম কে রায়হান: রাজধানীতে চালের দাম যেন পাগলা ঘোড়ার মত লাগামহীন হয়ে গেছে। দু-সপ্তাহের ব্যাবধানে প্রতি কেজিতে বেড়েছে ৬ থেকে ৮ টাকা পর্যন্ত। হঠাৎ করে দাম বৃদ্ধি এবং দাম বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় বিপাকে পরেছেন নগরবাসী।

এদিকে দাম বাড়ার কারণ হিসেবে খুচরা বিক্রেতারা পাইকার আর আড়ৎদারদের দুষলেও তারা তা মানতে নারাজ। আর বাজার মনিটরিং না থাকার কারণে তা আরও ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বলে মনে করছেন ভোক্তারা।

হায়দার আলী নামের এক ক্রেতা নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, “গত প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে চালের দাম বেড়েই চলছে। মোটা এক কেজি চালের দাম ৪৮ টাকা। হঠাৎ এমন দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় আমরা সাধারণ জনগণ বিপাকে পরেছি।”

রাজধানীর মিরপুর, মোহাম্মদপুর ও কাওরান বাজার সহ সব খুচরা ও পাইরারি বাজারে একই অবস্থা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে মিরপুরের এক খুচরা বিক্রেতা নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, “গত দুই সপ্তাহে আমাদের চাল কিনতে হয়েছে বাড়তি দামে। আর তাই আমরাও বাড়তি দামে বিক্রি করছি। যারা পাইকার ও মিল মালিক তারা চাল মজুত করে রেখে দাম বাড়িয়ে দিচ্ছেন।”

অন্যদিকে কাওরান বাজারের এক পাইকার বলেন, “ধানের সংকটে বাজারে চাল কম আসছে। আমরা যা পাচ্ছি তা বেশি দামে কিনতে হচ্ছে। যার ফলে খুচরা বাজারে এর প্রভাব পরেছে।”

এদিকে মিল মালিকরা বলছেন, “বোরো ধান বাজারে আসবে আরো ১ মাস পর আর আমনের জোগান প্রায় শেষ পর্যায়ে। আর এ অবস্থায় ধান সঙ্কটে বন্ধ রয়েছে বেশির ভাগ মিল। এই সঙ্কটের কারণে মিল পর্যায়ে কেজি প্রতি দাম বেড়েছে ১ থেকে দেড় টাকা। কিন্তু পাইকার ও খুচরা ব্যাবসায়ীরা দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন কয়েকগুন। যার ফলে ভোক্তাদের বেশি দিতে হচ্ছে প্রতি কেজিতে ৫ থেকে ৬ টাকা।”


সর্বশেষ

আরও খবর

ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল: ৪ প্রকৌশলী বরখাস্ত

ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল: ৪ প্রকৌশলী বরখাস্ত


পাট শ্রমিকরা প্রাপ্য টাকার অর্ধেক পাবেন নগদ, বাকীটা সঞ্চয়পত্রে

পাট শ্রমিকরা প্রাপ্য টাকার অর্ধেক পাবেন নগদ, বাকীটা সঞ্চয়পত্রে


করোনা সংকটের মধ্যেও রেমিট্যান্স ও রিজার্ভে রেকর্ড

করোনা সংকটের মধ্যেও রেমিট্যান্স ও রিজার্ভে রেকর্ড


প্রায় ২৫ হাজার পাটকল শ্রমিককে স্বেচ্ছা অবসরে পাঠাচ্ছে সরকার

প্রায় ২৫ হাজার পাটকল শ্রমিককে স্বেচ্ছা অবসরে পাঠাচ্ছে সরকার


বেতন কমানোর চিঠিতে ক্ষুব্ধ ব্যাংক কর্মকর্তারা

বেতন কমানোর চিঠিতে ক্ষুব্ধ ব্যাংক কর্মকর্তারা


বাজেট ২০২০-২০২১; বাড়তে – কমতে পারে যেসব পণ্যের

বাজেট ২০২০-২০২১; বাড়তে – কমতে পারে যেসব পণ্যের


করোনা মোকাবিলায় বরাদ্দ ১০ হাজার কোটি টাকা

করোনা মোকাবিলায় বরাদ্দ ১০ হাজার কোটি টাকা


৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


বাংলাদেশকে ৭৩ কোটি ডলার জরুরি সহায়তা দিচ্ছে আইএমএফ

বাংলাদেশকে ৭৩ কোটি ডলার জরুরি সহায়তা দিচ্ছে আইএমএফ


করোনাকে সঙ্গী করেই অর্থনৈতিক কাজ চালু করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

করোনাকে সঙ্গী করেই অর্থনৈতিক কাজ চালু করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী