Thursday, January 23rd, 2020
লেমিনেটেড পোস্টার: কেউ কিছু বলছে না দেখেই আদালতের রুল
January 23rd, 2020 at 1:47 pm
পলিথিন বা প্ল্যাস্টিকে মোড়ানো পোষ্টারগুলো মূলত সিটি কর্পোরেশনের জন্য নির্ধারিত ল্যান্ড ফিল গ্রাউন্ডেই (ময়লা ফেলার জায়গা) নেওয়া হবে। বর্জ্য ধ্বংসকরণ প্রক্রিয়া চালু না হওয়া অবধি এগুলো ধ্বংস হবে না।
লেমিনেটেড পোস্টার: কেউ কিছু বলছে না দেখেই আদালতের রুল

শরীফ খিয়াম, ঢাকা : রাজধানী ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের নয় দিন আগে ‘লেমিনেটেড’ (পলিথিনে বা প্লাস্টিকে আচ্ছাদিত পোস্টার  উৎপাদন, ছাপানো ও প্রদর্শন না করতে আদালতের দেওয়া আদেশটি ‘আশাব্যজ্ঞক’ হলেও রুলটি ‘দুর্বল’ বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। 

গণমাধ্যমের প্রতিবেদন আমলে নিয়ে  বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ বুধবার এ আদেশ দেন। রুলে সারা দেশে লেমিনেটেড পোস্টার উৎপাদন ছাপানো ও প্রদর্শন বন্ধের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

“যাদের এটা দেখার দায়িত্ব ছিল দায়িত্ব, তাদের কেউ কিছু বলছে না দেখেই আদালত এই রুল জারি করতে বাধ্য হয়েছেন,” নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনোজ কুমার ভৌমিক। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব, স্থানীয় সরকার সচিব, শিল্প সচিব, স্বাস্থ্য সচিব ও দুই সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলটির জবাব দিতে বলা হয়েছে।


আইনজীবী মনোজ এবং তাঁর সহকর্মী সুলায়মান হাওলাদারই ‘লেমিনেটেড পোস্টার ইন সিটি পোলস: এ বিগ থ্রেড টু এনভায়রনমেন্ট’ শিরোনামে ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি আদালতের নজরে এনে প্রয়োজনীয় নির্দেশনার আরজি জানান।

“রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত নতুন করে প্লাস্টিক আচ্ছাদিত বা লেমিনেটেড পোস্টার উৎপাদন, ছাপানো ও প্রদর্শন বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত,” বলেন মনোজ।

তবে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা)সহ-সভাপতি ড. মোহাম্মদ আব্দুল মতিন নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “পোস্টারগুলো অবিলম্বে সড়িয়ে নেওয়ার পাশাপাশি আর কখনো না লাগানোর নির্দেশ দেওয়া যেত। এসব পোস্টারের উৎপাদন বা ব্যবহার কেন বন্ধ হবে না, নতুন করে সে প্রশ্ন তোলার কোনো দরকার নেই।”

প্লাস্টিক বর্জ্যের ক্ষতিকর প্রভাব বিবেচনা করে ২০০২ সালের জানুয়ারি থেকে পলিথিনের উৎপাদন, পরিবহন, মজুদ ও ব্যবহারকে আইন করে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, “পলিথিন বা প্লাস্টিক আচ্ছাদিত পোস্টার আইনত বেআইনি। এই নিষিদ্ধ পণ্য যারা ব্যবহার করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আদেশ দেওয়া ‍উচিত ছিল।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আখতার হোসেন খান নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “পলিথিন বা প্লাস্টিক যে ক্ষতি করে, এই পোস্টারগুলোও একই ক্ষতি করবে। শেষ অবধি এগুলো জলাধার বা মাটি দূষণেরই কারণ হবে।”

বাংলাদেশ হাইকোর্ট। ফাইল ফটো
বাংলাদেশ হাইকোর্ট। ফাইল ফটো

পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের ক্ষতির কথা বিবেচনায় নিয়েই বিষয়টি আদালতের নজরে আনার কথা উল্লেখ করেন আইনজীবী মনোজ। তিনি জানান, ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনকে সামনে রেখে সাঁটানো লেমিনেটেড পোস্টারগুলো নির্বাচনের পরপরই যথাযথভাবে অপসারণ এবং ধ্বংসের নির্দেশ  দিয়েছে আদালত।

“এসব পোষ্টার একত্রিত করে পুড়িয়ে ফেলা ছাড়া কোনো উপায় নেই। কারণ পানিতে যাক বা মাটিতে, এগুলো পচতে কমপক্ষে ৪০-৫০ বছর লেগে যাবে,” বলেন ড. আখতার। তবে পোস্টারগুলো যথাযথভাবে অপসারণ সম্ভব হবে কিনা তা নিয়েও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। 

ড. মতিনও বলেন, “এ ব্যাপারে আমাদের অতীতের অভিজ্ঞতা ভালো নয়।”

ডেইলি স্টারের প্রতিবেদনে বলা হয়, পরিচ্ছন্ন সবুজ নগরী উপহার দেওয়ার কথা বললেও ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা প্লাস্টিকে মোড়ানো (লেমিনেটেড) নির্বাচনী পোস্টারে ছেয়ে ফেলেছেন গোটা ঢাকা শহর। পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর হলেও বৃষ্টি, কুয়াশা, আর্দ্রতা কিংবা ধুলাবালি থেকে পোস্টারগুলো রক্ষা করার জন্য তারা প্লাস্টিকের ব্যবহার করছেন।

বর্জ্য ব্যবস্থাপকদের দৃষ্টিতে : “অতীতে কখনো এত পোস্টার লেমিনেটিং করে লাগাতে দেখিনি,” উল্লেখ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেসনের (ডিএসসিসির) প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমোডর মোঃ জাহিদ হোসেন নিউজনেক্সটবিডিকে জানান, নির্বাচনের পর এগুলো সড়িয়ে ফেলতে কমপক্ষে এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিন লেগে যাবে।   

“লাখ লাখ পোস্টার লাগানো রয়েছে। এগুলো অপসারণের জন্য আমাদের আলাদা কোনো জনবলও নেই। সাধারণত পরিচ্ছন্নতা কর্মীদেরই বাড়তি খাটিয়ে এই কাজটি করতে হবে। আমরা চেষ্টা করবো যাতে পোস্টারগুলো যত্রতত্র ছড়িয়ে না পড়ে,” বলেন তিনি।  

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেসনের (ডিএনসিসির)বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী (সিএন্ডটি) মো. ইকরামুল হক খন্দকার নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন, “আমাদের সর্বাত্মক প্রস্তুতি রয়েছে। যেদিন নির্বাচন শেষ হবে, সাথে সাথেই পোস্টারগুলো অপসারণের কাজ শুরু হয়ে যাবে।”

“সবগুলো ওয়ার্ড পরিস্কার করতে সর্বোচ্চ তিন দিন লাগবে,” বলেও জানান তিনি।

কর্মকর্তারা জানান, পলিথিন বা প্ল্যাস্টিকে মোড়ানো পোষ্টারগুলো মূলত সিটি কর্পোরেশনের জন্য নির্ধারিত ল্যান্ড ফিল গ্রাউন্ডেই (ময়লা ফেলার জায়গা) নেওয়া হবে। বর্জ্য ধ্বংসকরণ প্রক্রিয়া চালু না হওয়া অবধি এগুলো ধ্বংস হবে না।  

ইসির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন : পরিবেশবিদ ড. আখতার বলেন, “নির্বাচন কমিশনেরই এ বিষয়ক নির্দেশনা দেওয়া উচিত ছিল। তারা প্রার্থীদের পোস্টারের আকার, রঙ নির্ধারণ করে দিলেও তাতে পলিথিন বা প্লাস্টিক ব্যবহার করা যাবে না, এমনটা কিন্তু বলেনি।”

এয়ার কমোডর জাহিদও মনে করেন, ইসি থেকে এ বিষয়ে একটা নিষেধাজ্ঞা দেওয়া উচিত ছিল। “নির্বাচনী আচরণবিধির মধ্যে নতুন একটি শর্ত তারা সংযুক্ত করতে পারতেন,” নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন তিনি।

বাপার নেতা ড. মতিন বলেন, “আদালতের এই আদেশের পর এখন অন্তত ইসির উচিত এ ব্যাপারে নতুন একটা নির্দেশণা জারি করা।”

আইনজীবী মনোজ জানান,আদালতের কাছেও তারা এমন আবেদন জানিয়েছেন। মৌখিকভাবে আদালত এ ব্যাপারে কিছু না বললেও লিখিত আদেশে সুনির্দিষ্ট নির্দেশ থাকতে পারে বলে ধারণা তাঁর।   

“তবে যারা এই পোস্টারগুলো লাগিয়েছে, তাদেরই বোঝা উচিত ছিল। রাজনীতিবিদদের আরো পরিবেশ সচেতন হওয়া উচিত,” বলেন ড. আখতার।

যা বললেন ইসির কর্মকর্তা : “আদালতের নির্দেশ তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর হয়ে গেছে। নির্বাচনে নতুন করে আর কোনো লেমিনেটেড পোস্টার আর ব্যবহার হবে না,” নিউজনেক্সটবিডিকে বলেন ইসির অতিরিক্ত সচিবমো. মোখলেসুর রহমান।

তিনি জানান, বিষয়টি এখনই হয়ত বিধিমালায় সংযুক্ত করা যাবে না। তবে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী ভবিষ্যতের জন্য ইসির যা করণীয় তা অবশ্যই করা হবে। 

এক্ষেত্রে আদালতের অবস্থান খুবই ‘প্রাসঙ্গিক’ উল্লেখ করে মোখলেসুর বলেন, “লেমিনেটেড পোস্টার মাটিতে পচে না, উর্বরতা নষ্ট করে, আবার পানিও প্রবাহ আটকে দেয়। এই বিশাল ক্ষতির বিষয়টি অবশ্যই বিবেচনায় নেওয়া হবে।”


সর্বশেষ

আরও খবর

করোনার ক্রান্তিলগ্নে দাড়িয়ে বিশ্ব, আসলে দায় কার?

করোনার ক্রান্তিলগ্নে দাড়িয়ে বিশ্ব, আসলে দায় কার?


রমজানে অফিস চলবে ৯টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত

রমজানে অফিস চলবে ৯টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত


জুমার জামাতে ১০, ওয়াক্ত নামাজে ৫ জনের বেশি মসজিদে না যাওয়ার নির্দেশনা

জুমার জামাতে ১০, ওয়াক্ত নামাজে ৫ জনের বেশি মসজিদে না যাওয়ার নির্দেশনা


দেশে করোনায় আরও ৩ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

দেশে করোনায় আরও ৩ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর


শবে বরাতের ইবাদত ঘরে পালনের আহ্বান ইসলামিক ফাউন্ডেশনের

শবে বরাতের ইবাদত ঘরে পালনের আহ্বান ইসলামিক ফাউন্ডেশনের


করোনায় মৃত্যু ছাড়ালো ৬০ হাজার, আক্রান্ত ১১ লাখের বেশি

করোনায় মৃত্যু ছাড়ালো ৬০ হাজার, আক্রান্ত ১১ লাখের বেশি


হাসপাতাল-ক্লিনিক বন্ধ রাখলে ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

হাসপাতাল-ক্লিনিক বন্ধ রাখলে ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর


করোনায় নতুন আক্রান্ত ৫, মোট ৬১

করোনায় নতুন আক্রান্ত ৫, মোট ৬১


মক্কা-মদিনায় ২৪ ঘণ্টার কারফিউ জারি

মক্কা-মদিনায় ২৪ ঘণ্টার কারফিউ জারি


করোনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার, গ্রেফতার ১

করোনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার, গ্রেফতার ১