Monday, September 5th, 2016
শিক্ষক লাঞ্ছনা: বিচার বিভাগীয় তদন্ত শুরু
September 5th, 2016 at 9:04 am
শিক্ষক লাঞ্ছনা: বিচার বিভাগীয় তদন্ত শুরু

ঢাকা: ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের স্কুল শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় গত ৩১ আগস্ট থেকে তদন্ত শুরু করেছে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি।

রোববার হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (প্রশাসন ও বিচার) সাব্বির ফয়েজ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনায় পুলিশ প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত করতে ব্যর্থ হয়েছে মন্তব্য করে পুরো ঘটনা বিচারিক তদন্তে গত ১০ অগাস্ট নির্দেশ দেন হাই কোর্টের একটি বেঞ্চ।

আদালত বলেন, ওই ঘটনা তদন্ত করে আগামী ৩ নভেম্বরে মধ্যে হাই কোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য। আগামী ৬ নভেম্বর প্রয়োজনীয় আদেশের জন্য বিষয়টি উক্ত বেঞ্চে উঠবে বলে আদেশ দিন ঠিক করেন হাই কোর্ট।

রেজিস্ট্রার সাব্বির ফয়েজ বলেন, হাই কোর্টের আদেশে গত ৩১ আগস্ট বুধবার থেকে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কাজ শুরু করেছেন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম শেখ হাফিজুর রহমান। এর মধ্যে সংবাদ প্রকাশিত সংবাদের কপি চেয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্র ও টিভিতে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সিএমএম (বিচারক) শীঘ্রই নারায়ণগঞ্জও যাবেন, বলেও জানান সাব্বির ফয়েজ।

তিনি আরও বলেন, সমকাল, ইত্তেফাক, যুগান্তর, প্রথম আলো, চ্যানেল আই, এটিএন বাংলা, চ্যানেল টোয়েন্টিফোর, সময় টিভি, এসএ টিভিতে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

একটি চিঠিতে বলা হয়, সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে উক্ত ঘটনার বিষয়ে আপনার পত্রিকয় গত ১৮-মের প্রতিবেদনসহ বিভিন্ন তারিখে প্রকাশিত সংশ্লিষ্ট সকল প্রতিবেদন নিম্ন স্বাক্ষরকারী বরাবরে সাত দিনের মধ্যে পাঠানোর জন্য নির্দেশ এবং অনুরোধ করা হলো।

সিএমএম কোর্টের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের পক্ষে মুহাম্মদ মাজহারুল ইসলামের স্বাক্ষরে এসব চিঠি পাঠানো হয়। গত ১০ অগাস্ট এ সংক্রান্ত নির্দেশ দেন হাই কোর্ট।

নারায়ণগঞ্জের স্কুলশিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে লাঞ্ছনায় মন্ত্রী থেকে শুরু করে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ একেএম সেলিম ওসমানের শাস্তি দাবি করলেও পুলিশ তদন্ত করে ৭ অগাস্ট আদালতে যে প্রতিবেদন দেয়, তাতে বলা হয়, ওই ঘটনায় এই সংসদ সদস্যের কোনো দোষ তারা পায়নি।

হাইকোর্ট আদেশে বলেছে, সাধারণ ডাইরির পরিপ্রেক্ষিতে ওই ঘটনার তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের চিহ্নিত করতে তদন্ত কর্মকর্তা ব্যর্থ হয়েছেন। তদন্ত প্রতিবেদনটি ‘অসম্পূর্ণ ও অসমন্বিত’।

আদালত আরও বলেন, তদন্ত কর্মকর্তার দাখিল করা প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে ঘটনার সত্যতা মেলেনি বলে যে বিচারক (নারায়ণগঞ্জ আদালতের) ওই প্রতিবেদন নথিভুক্ত করে রাখেন, তিনি তাতে ‘বিচারিক মন প্রয়োগ করেননি’।

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার পিয়ার সাত্তার লতিফ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শ্যামল কান্তিকে গত ১৩ মে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে লাঞ্ছিত করার ঘটনাটি প্রকাশ পেলে দেশজুড়ে নিন্দা-প্রতিবাদের ঝড় উঠে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানই যে সেদিন শিক্ষক শ্যামল কান্তিকে কান ধরে উঠ-বস করার নির্দেশ দিয়েছিলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতেও তা দেখা যায়।

সরকারের মন্ত্রীরাও সে সময় সেলিম ওসমানের ভূমিকার জন্য সমালোচনায় মুখে পড়েন। তবে নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী ওসমান পরিবারের এই সদস্য কোনো ‘ভুল করেননি’ দাবি করে ক্ষমা চাইতে অস্বীকার করেন।

ওই ঘটনা নিয়ে সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে এলে হাই কোর্ট স্ব:প্রণোদিত হয়ে রুল জারিসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন।

মে মাসে ঘটনার পরপরই শিক্ষক শ্যামল কান্তিকে চাকরিচ্যুত করেছিল বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে নিন্দা-প্রতিবাদের মধ্যে দুই দিনের মাথায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় ওই সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করে। পরে বিদ্যালয় কমিটিও বাতিল করা হয়। দীর্ঘদিন ঢাকায় চিকিৎসা শেষে মে মাসে আবার স্কুলে ফিরে যান শ্যামল কান্তি।

ধর্ম অবমাননা ছাড়াও শ্যামল কান্তির বিরুদ্ধে নির্যাতিত ছাত্রের পক্ষে অভিযোগ তুলে মায়ের করা আরেকটি মামলা নারায়ণগঞ্জের আদালত খারিজ করে দেন।

প্রতিবেদন: ফজলুল  হক, সম্পাদনা: মাহতাব শফি

 


সর্বশেষ

আরও খবর

৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ


করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, ৭৮ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত


ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

মানুষের জন্য কিছু করতে পারাই আমাদের রাজনীতির লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী


আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার

আনিসুল হত্যা: মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার গ্রেপ্তার


পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি

পাওয়ার গ্রিডের আগুনে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন পুরো সিলেট, ব্যাপক ক্ষতি


দুবাই পাচারকালে হিথ্রো বিমানবন্দরে ১২ লক্ষ পাউন্ড সহ দুই চেকরিপাবলিক নাগরিককে আটক করেছে ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন

দুবাই পাচারকালে হিথ্রো বিমানবন্দরে ১২ লক্ষ পাউন্ড সহ দুই চেকরিপাবলিক নাগরিককে আটক করেছে ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন


লন্ডনে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে দুই ব্রিটিশ বাঙ্গালীর ৩৬ বছরের কারাদন্ড

লন্ডনে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে দুই ব্রিটিশ বাঙ্গালীর ৩৬ বছরের কারাদন্ড


দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির

দুইদিনের বিক্ষোভের ডাক বিএনপির


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে