Thursday, July 7th, 2016
সংকটে সোনালী সূত্র ‘সরকারকে সহযোগিতা’
July 7th, 2016 at 8:13 pm
সংকটে সোনালী সূত্র ‘সরকারকে সহযোগিতা’

মাসকাওয়াথ আহসান: ৫৬ হাজার বর্গমাইলের বাংলাদেশে ১৫ কোটি মানুষের বাস। এই রাষ্ট্র পরিচালনা পৃথিবীর অন্য যে কোনো দেশের চেয়ে কঠিন। এই চ্যালেঞ্জটি আরো বড় হয়ে দেখা দিয়েছে যখন বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদ তার চূড়ান্ত আঘাত হানতে শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিলারী ক্লিনটন অন ক্যামেরা স্বীকার করেছেন; আল-কায়েদা যুক্তরাষ্ট্রের সৃষ্টি। আফঘান যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি করা মুজাহেদিনরা যখন ফ্রাংকেনস্টাইন হয়ে গেলো; ঠিক ঐ সময় আফঘান যুদ্ধ ফেরত মুজাহেদিনরা বাংলাদেশে সন্ত্রাসী সংগঠন তৈরি করেছে।

সম্প্রতি বৃটিশ সরকারের এক সার্বভৌম তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করেছে, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন মিথ্যার ওপর দাঁড়িয়ে বৃটেন ও এমেরিকা ইরাকে হামলা করেছিলো।

সিএনএন ইঙ্গ-মার্কিন ঘাতক সেনাদলের শয্যাশায়িনী হয়ে মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে “দ্য বার্ণিং ইরাক” চলচ্চিত্র দেখিয়েছে বিশ্ববাসীকে। মিথ্যা প্রচারণার আড়ালে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে ইরাক। অথচ এটি একটি সামাজিক গণতন্ত্রী রাষ্ট্র ছিলো। ইরাক পুড়ে যাওয়ায় সেখানে ভঙ্গুর রাষ্ট্রব্যবস্থায় আই এস-এর উত্থান ঘটেছে।

সুতরাং আজকের এই জঙ্গিবাদের মারণ ছোবলের জন্য যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্য এবং ন্যাটোভুক্ত দেশগুলো সবাই দায়ী এতো প্রমাণিত সত্য। সুতরাং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী যখন জঙ্গিবাদের উত্থানের জন্য পশ্চিমা শক্তিকে দায় নিতে বলেন; সেটি যৌক্তিক দাবি।

আর গোটা পৃথিবী প্রত্যক্ষ করেছে আফঘানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার নামে যুক্তরাষ্ট্র হামিদ কারজাই-এর পুতুল সরকার দিয়ে রাষ্ট্রটির কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দিয়েছে। আফঘানিস্তান ও পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের সর্পনৃত্য সবাই দেখেছে।

তাই বাংলাদেশ রাষ্ট্রে সন্ত্রাসবাদের আঘাত মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকার জনমানুষকে নিয়ে নিজেই তার সর্বশক্তি দিয়ে লড়বে। সংকট ও সংঘর্ষ প্রশমনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে কৌশল অবলম্বন করছেন; সেই প্রজ্ঞাকৌশলটি প্যারিস ও ব্রাসেলস হামলার পর ফ্রান্স ও বেলজিয়ামের সরকারকে অবলম্বন করতে দেখা গেছে। ফ্রান্স-বেলজিয়ামের প্রতিটি নাগরিক বিনা বাক্য ব্যয়ে তাদের নিজ নিজ সরকারকে সমর্থন দিয়েছে। এটাই যে সভ্যতার নিয়ম। কয়েক প্রজন্মের শিক্ষিত মানবিক বাস্তববাদী ঐ দেশগুলোর নাগরিকেরা জানে সংকটের মুহূর্তে সুপ্রিম কমান্ডের নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।

maskaoathলেখক: প্রবাসী লেখক ও সাংবাদিক


সর্বশেষ

আরও খবর

গণতন্ত্রের রক্ষাকবজ হিসাবে গণমাধ্যম ধারালো হাতিয়ার

গণতন্ত্রের রক্ষাকবজ হিসাবে গণমাধ্যম ধারালো হাতিয়ার


মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ

মহামারী, পাকস্থলির লকডাউন ও সহমতযন্ত্রের নরভোজ


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করুন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করুন


নাচ ধারাপাত নাচ!

নাচ ধারাপাত নাচ!


মাতৃভাষা বাংলা’র প্রথম লড়াই ১৮৩৫ সালে হলেও নেই ইতিহাসে!

মাতৃভাষা বাংলা’র প্রথম লড়াই ১৮৩৫ সালে হলেও নেই ইতিহাসে!


তারুণ্যের ইচ্ছার স্বাধীনতা কোথায়!

তারুণ্যের ইচ্ছার স্বাধীনতা কোথায়!


সমাজ ব্যর্থ হয়েছে; নাকি রাষ্ট্র ব্যর্থ হয়েছে?

সমাজ ব্যর্থ হয়েছে; নাকি রাষ্ট্র ব্যর্থ হয়েছে?


যুদ্ধ এবং প্রার্থনায় যে এসেছিলো সেদিন বঙ্গবন্ধুকে নিয়েই আমাদের স্বাধীনতা থাকবে

যুদ্ধ এবং প্রার্থনায় যে এসেছিলো সেদিন বঙ্গবন্ধুকে নিয়েই আমাদের স্বাধীনতা থাকবে


বঙ্গবন্ধু কেন টার্গেট ?

বঙ্গবন্ধু কেন টার্গেট ?


আমি বাংলার, বাংলা আমার, ওতপ্রোত মেশামেশি…

আমি বাংলার, বাংলা আমার, ওতপ্রোত মেশামেশি…