Tuesday, June 14th, 2016
জাসদ’র বিরুদ্ধে ২০ লাখ হত্যার অভিযোগ
June 14th, 2016 at 1:55 pm
জাসদ’র বিরুদ্ধে ২০ লাখ হত্যার অভিযোগ

ঢাকা: তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর নেতৃত্বাধীন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) বিরুদ্ধে এবার জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের বিশ লাখ নেতা-কর্মীকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। সংসদের চলতি অধিবেশনে মঙ্গলবার সকালে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ এই অভিযোগ তোলেন।

 সংসদে কাজী ফিরোজ রশীদ আরো বলেন, ‘আমি একটি প্রটেকশন চাই। প্রধানমন্ত্রী নীলকণ্ঠ। সমস্ত বিষ খেয়ে হজম করতে পারেন। উনি সমস্ত বিষ খেয়ে জাসদকে সংসদে আনছেন। আমার মনে হয় ভব্যিষতে এখন যারা গুপ্ত হত্যা করছে তাদেরও না জানি আবার সংসদে আনেন।’

ফিরোজ রশীদ বলেন, ‘সংসদ সদস্যদের মধ্যে আমরা যারা বিরোধী দলে আছি তারা সংখ্যায় একদম কম । ৪০ জন। আমাদের সংসদ টেলিভিশনে দেখায় না। এর একমাত্র কারণ হচ্ছে আমাদের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু জাসদ করেন। সমস্যা সেখানে না, সমস্যা হল আমরা এক সঙ্গে ছাত্রলীগ করেছি, যুদ্ধ করলাম। সবই ঠিক ছিল। কিন্তু একই বিছানা থেকে উঠে উনি আমাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধরলেন। অস্ত্র ধরার বিনিময়ে  কি হলো? গুনে গুনে আমাদের বিশ লাখ মানুষকে হত্যা করল।

সেদিন যদি জাসদ গণবাহিনী করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদেরকে বেছে বেছে নির্বিচারে হত্যা না করত; তাহলে দেশে দুর্দিন আসতো না। বঙ্গবন্ধুর মত অত বড় জাতীয় নেতাকেও আমরা হারাতাম না। এই যে হত্যা হল,  বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হলো; সেটারই সুযোগ নিলো কুচক্রী মহল।’ রশীদ যোগ করেন, ‘ইনুদের ব্যাপারে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম যথার্থ বলেছেন।’

এর আগে সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) অডিটরিয়ামে ছাত্রলীগের দুই দিনব্যাপী বর্ধিত সভা ও কর্মশালার সমাপনী বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলকে (জাসদ) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান হত্যার পরিবেশ তৈরি করেছিলো। দলটির বর্তমান সভাপতি হাসানুল হক ইনু বর্তমান সরকারের মন্ত্রিসভায় থাকায়ও তিনি আক্ষেপ প্রকাশ করেন।

সংসদে কাজী ফিরোজ রশীদ আরো বলেন, ‘আমি একটি প্রটেকশন চাই। প্রধানমন্ত্রী নীলকণ্ঠ। সমস্ত বিষ খেয়ে হজম করতে পারেন। উনি সমস্ত বিষ খেয়ে জাসদকে সংসদে আনছেন। আমার মনে হয় ভব্যিষতে এখন যারা গুপ্ত হত্যা করছে তাদেরও না জানি আবার সংসদে আনেন।’ এ সময় রশীদের বক্তব্য থামিয়ে দিয়ে অধিবেশনের সভাপতি অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, ‘মাননীয় সদস্য, আমাদের সিদ্ধান্ত ছিলো বাজেট আলোচনার সময় আমরা কোনো পয়েন্ট অব অর্ডার দেব না।

আপনি পয়েন্ট অব অর্ডারে টেলিভিশনে চেহারা দেখানোর কথা বলতে গিয়ে কিছু স্পর্শকাতর বিষয় বলেছেন। যা আমি এই সংসদের কার্যক্রম থেকে এক্সপাঞ্জ করে দিলাম।’এরপর জাসদের আরেক অংশের নেতা মইন উদ্দীন খান বাদল পয়েন্ট অব অর্ডারে কথা বলতে চাইলেও স্পিকার তাকে কোনো সুযোগ দেননি।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসকে/এমএস/এসআই


সর্বশেষ

আরও খবর

নামেই কঠোর লকডাউন, গণপরিবহন ছাড়া চলছে সব গাড়ি

নামেই কঠোর লকডাউন, গণপরিবহন ছাড়া চলছে সব গাড়ি


করোনায় আরও ৯৫ জনের মৃত্যু

করোনায় আরও ৯৫ জনের মৃত্যু


জনপ্রতি ফিতরা সর্বনিম্ন ৭০ ও সর্বোচ্চ ২৩১০ টাকা নির্ধারণ

জনপ্রতি ফিতরা সর্বনিম্ন ৭০ ও সর্বোচ্চ ২৩১০ টাকা নির্ধারণ


লকডাউন বাড়ছে আরও এক সপ্তাহ

লকডাউন বাড়ছে আরও এক সপ্তাহ


ক্রমেই বাড়ছে মৃত্যু, আজও রেকর্ড ১১২ জনের মৃত্যু

ক্রমেই বাড়ছে মৃত্যু, আজও রেকর্ড ১১২ জনের মৃত্যু


আবারও মৃত্যুর রেকর্ড, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০২

আবারও মৃত্যুর রেকর্ড, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০২


গ্রেফতার হলেন মামুনুল হক

গ্রেফতার হলেন মামুনুল হক


করোনায় দেশে একদিনে শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড

করোনায় দেশে একদিনে শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড


করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ১০ হাজার

করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ১০ হাজার


জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা