Sunday, January 6th, 2019
সংসদ সদস্যদের প্রায় ৬২ শতাংশ পেশায় ব্যবসায়ী
January 6th, 2019 at 9:22 pm
সংসদ সদস্যদের প্রায় ৬২ শতাংশ পেশায় ব্যবসায়ী

ঢাকা: একাদশ জাতীয় নির্বাচনে শপথ নেওয়া সংসদ সদস্যদের ১৮২ জনই পেশায় ব্যবসায়ী। যা মোট সাংসদের ৬১ দশমিক ৭ শতাংশ। এর মধ্যে মহাজোট থেকে নির্বাচিত পেশায় ব্যবসায়ী আছেন ১৭৪ জন।

আজ রোববার বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থীদের সম্পর্কে এসব তথ্য তুলে ধরে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)।

সুজনের তথ্য বলছে, মহাজোট থেকে আসা স্নাতক পাশ সংসদ সদস্য আছেন ১১২ জন এবং স্নাতকোত্তর পাশ আছেন ১২৪ জন। তবে মহাজোট থেকে আসা এসএসসি পাশ করেননি এমন সংসদ সদস্য আছে ১১ জন। অন্যদিকে ঐক্যফ্রন্ট থেকে আসা এসএসসি পাশ করেননি এমন সংসদ সদস্য আছেন ১ জন। আর ঐক্যফ্রন্ট থেকে আসা স্নাতক পাশ সংসদ সদস্য আছেন ২ জন এবং স্নাতকোত্তর পাশ আছেন ২ জন।

সুজনের সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার বলেন, এই নির্বাচনে অনেক প্রার্থীই তাদের হলফনামা ঠিকভাবে পূরণ করেনি, অসম্পূর্ণ রেখেছেন। অনেকে পেশা উল্লেখ করেননি, সম্পদের হিসেব দেননি। এই অসম্পূর্ণ হলফনামার জন্য তথ্য গোপন করা হয়েছে, বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দেওয়া হয়েছে।

নির্বাচনে ভোটের অনিয়মকে ইঙ্গিত করে বদিউল আলম বলেন, যেখানে ইভিএমে ৬টি নির্বাচনী আসনে ৫০ শতাংশের কম ভোট পড়েছে, সেখানে অন্যান্য আসনে ৮০ শতাংশ ভোট পড়েছে। কেন পড়লো? এটা কী ইভিএমের সমস্যা নাকি অন্যগুলো আসনে ভোটের সমস্যা? নির্বাচন কমিশনকে এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। আমরা দাবি করছি, তারা জানাবে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বদিউল আলম মজুমদার আরও বলেন, একটা ইতিবাচক দিক হলো– এবারের নির্বাচনে অধিক শিক্ষিতরা নির্বাচিত হয়েছেন। বেশি কর প্রদানকারীরা নির্বাচিত হয়েছেন। কতগুলো অশনিসংকেত ও আছে। অধিক ব্যবসায়ী, ধনাঢ্য ব্যক্তিরা নির্বাচিত হয়েছেন। ধনাঢ্য ব্যক্তি, ব্যবসায়ীদের করায়ত্ত হয়েছে আমাদের পার্লামেন্ট। নাগরিকদের ভোটাধিকার থাকলেও তাদের প্রতিনিধি হওয়ার সুযোগ দিনকে দিন সংকুচিত হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, আমরা কোনো নিবাচন পর্যবেক্ষণ করি না। তবে নির্বাচনী প্রক্রিয়ার ওপর কাজ করি। নির্বাচন নিয়ে অনেকগুলো প্রশ্ন উঠেছে। নির্বাচনে যেসব অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে- ইসির দায়িত্ব হবে সেগুলো তদন্ত করা। অনিয়ম প্রমাণিত হলে নির্বাচন বাতিল করারও ক্ষমতা আছে কমিশনের।

অনুষ্ঠানে পরিবেশ আইনজীবী সৈয়দা রেজওয়ানা হাসান বলেন, আমি যেই কেন্দ্রের ভোটার সেখানে দেখেছি নৌকা ও হাতপাখার পোস্টার ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থীর পোস্টার নেই। নির্বাচনে ভোটরদের স্বতঃস্ফূর্ততা ছিল। স্বতঃস্ফূর্ততা না থাকলে এটাকে সুষ্ঠু নির্বাচন বলা যায় না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সুজন সভাপতি এম হাফিজ উদ্দিন খান প্রমুখ।

নিজস্ব প্রতিবেদক, সম্পাদনা: এম কে রায়হান


সর্বশেষ

আরও খবর

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সৈয়দ আশরাফ

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সৈয়দ আশরাফ


যেসব হেভিওয়েট মন্ত্রী বাদ পড়লেন

যেসব হেভিওয়েট মন্ত্রী বাদ পড়লেন


গঠিত হচ্ছে ৪৬ সদস্যের মন্ত্রিসভা

গঠিত হচ্ছে ৪৬ সদস্যের মন্ত্রিসভা


সৈয়দ আশরাফের প্রথম জানাজা সম্পন্ন, দাফন বিকালে

সৈয়দ আশরাফের প্রথম জানাজা সম্পন্ন, দাফন বিকালে


আ.লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

আ.লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১


গণফোরামের দুই এমপির শপথ নেওয়ার ইঙ্গিত ড. কামালের

গণফোরামের দুই এমপির শপথ নেওয়ার ইঙ্গিত ড. কামালের


দেশে পৌঁছেছে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ

দেশে পৌঁছেছে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ


নোয়াখালীর পথে মির্জা ফখরুলসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতারা

নোয়াখালীর পথে মির্জা ফখরুলসহ ঐক্যফ্রন্টের নেতারা


সিরাজগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় বাবা-ছেলেসহ নিহত ৩

সিরাজগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় বাবা-ছেলেসহ নিহত ৩


বিরোধী দলে থাকার সিদ্ধান্ত জাতীয় পার্টির

বিরোধী দলে থাকার সিদ্ধান্ত জাতীয় পার্টির