Thursday, January 9th, 2020
সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে উত্তাল ঢাবি, মুখ খুলেছে মজনু
January 9th, 2020 at 3:14 pm
বিচারে দীর্ঘসূত্রিতা, কালক্ষেপণের কারণে এই সিরিয়াল রেপিস্টরা তৈরি হচ্ছে -অভিমত শিক্ষার্থীদের
সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে উত্তাল ঢাবি, মুখ খুলেছে মজনু

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকাঃ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর ধর্ষণকারী মজনুর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে টিএসসিতে অবরোধ ও মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে তারা অবরোধ শুরু করেন। এসময় ধর্ষণ প্রতিরোধে ফ্ল্যাশ মব করা হয়।

ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা ধর্ষক মজনুর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করছি। বিচারে দীর্ঘসূত্রিতা, কালক্ষেপণের কারণে এই সিরিয়াল রেপিস্টরা তৈরি হচ্ছে। ক্যাম্পাসে ও রাজধানীতে ছাত্রীদের জন্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রশাসনকে উদ্যোগ নিতে হবে।

ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

এসময় শিক্ষার্থীরা ধর্ষকের বিচার দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন। তাদের হাতে ধর্ষণবিরোধী ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

অপরদিকে কালো পতাকা মিছিল করেছে গণরুমের শিক্ষার্থীরা। এতে নেতৃত্ব দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

এর আগে বুধবার ভোরে (০৮ জানুয়ারি) রাজধানীর বিমানবন্দর সড়ক এলাকা থেকে ধর্ষক মজনুকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। পরে ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীকে তার ছবি দেখালে ধর্ষককে শনাক্ত করেন তিনি। এদিনই মজনুকে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) হাতে তুলে দেয় র‌্যাব। পরে ক্যান্টনম্যান্ট থানায় ওই ছাত্রীর বাবার করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ধর্ষক মজনুকে আদালতে নেয় পুলিশ। 

এদিকে ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাবা ঘটনার রাতেই ক্যান্টনমেন্ট থানায় একটি অভিযোগ করেন। যাচাই-বাছাই শেষে পরদিন অর্থাৎ মঙ্গলবার অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়। একই সঙ্গে আদালত মামলার বিষয়ে আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। পরে মামলাটি ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়। 

এদিকে, গ্রেপ্তারের পর আসামি মজনু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন বলে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব জানিয়েছে। র‌্যাব জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি বলেছেন, ৫ জানুয়ারি কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে তিনি বিমানবন্দর সড়ক ধরে হাঁটছিলেন। এ সময় পিঠে ব্যাগ নিয়ে যাচ্ছিলেন ওই ছাত্রী। তাঁকে পেছন থেকে জাপটে ধরে ঝোপের দিকে টেনে নিয়ে যান মজনু। এরপর ছাত্রীটিকে ঘুষি, চড় মারতে থাকেন এবং গলা চেপে ধরে হত্যার হুমকি দেন। এ অবস্থায় ছাত্রীটি পুরোপুরি বিপর্যস্ত হয়ে অচেতন হয়ে পড়েন। তাঁর যখন চেতনা ফিরে আসে, তখন তিনি সুযোগ বুঝে মজনুর কাছ থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে নিয়ে পালাতে সক্ষম হন।

র‍্যাব বলছে, ধর্ষণের পর প্রাণভয়ে ওই ছাত্রী ছুটে রাস্তার মাঝখানে চলে যান। কিন্তু সড়ক বিভাজক থাকায় পার হতে পারেননি। ব্যস্ত সড়কে তিনি প্রাণ হারাতে পারতেন। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর উড়ালসড়ক দিয়ে রাস্তা পার হয়ে রিকশা নেন। অন্যদিকে আসামি মজনু ওই রাতেই ছাত্রীটির কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া মুঠোফোনটি বিক্রি করে নরসিংদী চলে যান। পরে আবার ফিরে আসেন। গত মঙ্গলবার দিনভর মজনু বনানী রেলস্টেশন এলাকায় ছিলেন।

আসামি মজনুকে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় মামলার তদন্তকারী সংস্থা ডিবির কাছে হস্তান্তর করে র‍্যাব। ডিবির (উত্তর) উপকমিশনার মশিউর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, তাঁরা তদন্তের কাজ শুরু করবেন, এ জন্য বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে। যদি দরকার হয় পুলিশ আসামিকে শনাক্তকরণ প্যারেড করাবে।

গত ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় কুর্মিটোলা বাসস্টপেজে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নামার পর ঢাবির ওই ছাত্রীকে মুখ চেপে পার্শ্ববর্তী একটি স্থানে নিয়ে যায় অজ্ঞাত ব্যক্তি। সেখানে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করা হয়। পরে জ্ঞান ফিরলে তিনি নিজেকে নির্জন স্থানে অবিষ্কার করেন। পরে সেখান থেকে পালিয়ে নিজ গন্তব্যে পৌঁছালে রাত ১২টার পর তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। বৃহস্পতিবার তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।

এদিকে, ধর্ষণের শিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রী হাসপাতাল ছেড়েছেন। এতদিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি । আজ দুপুর ১২টার দিকে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে হাসপাতাল ছেড়ে যান ওই ছাত্রী। ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসির উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঢাবি ছাত্রীকে ছাড়পত্র দিয়েছে মেডিকেল বোর্ড। কোনো সমস্যা হলেই তাকে আবার ফলোআপে আসতে বলা হয়েছে।


সর্বশেষ

আরও খবর

রিজভী-দুলুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

রিজভী-দুলুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি


অপারেশনের পর সুস্থ আছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল

অপারেশনের পর সুস্থ আছেন খালেদা জিয়া: ফখরুল


বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে জড়িতদের খোঁজার নির্দেশনা চেয়ে রিট

বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে জড়িতদের খোঁজার নির্দেশনা চেয়ে রিট


সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস: প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ, আশ্বাস আইনমন্ত্রীর

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস: প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ, আশ্বাস আইনমন্ত্রীর


বিএফইউজের নতুন সভাপতি ফারুক, মহাসচিব দীপ

বিএফইউজের নতুন সভাপতি ফারুক, মহাসচিব দীপ


কালীপূজায় হবে না দীপাবলি!

কালীপূজায় হবে না দীপাবলি!


রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ঠেকাতেই মুহিবুল্লাহকে হত্যা: পুলিশ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন ঠেকাতেই মুহিবুল্লাহকে হত্যা: পুলিশ


সহিংসতায় নিহত ৬ রোহিঙ্গা, ইউএন বলছে ৭

সহিংসতায় নিহত ৬ রোহিঙ্গা, ইউএন বলছে ৭


ইকবালকে জেরা করছে পুলিশ, সারাদেশে গ্রেফতার ৫৮৪

ইকবালকে জেরা করছে পুলিশ, সারাদেশে গ্রেফতার ৫৮৪


সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, সংবিধান এবং আশাজাগানিয়া মুরাদ হাসান

সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, সংবিধান এবং আশাজাগানিয়া মুরাদ হাসান