Monday, November 7th, 2016
সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টাকারীদের গ্রেফতার দাবি ঢাবি উপাচার্যের
November 7th, 2016 at 4:17 pm
সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টাকারীদের গ্রেফতার দাবি ঢাবি উপাচার্যের

মিশুক মনির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: পুরান ঢাকায় অবৈধ পলিথিন তৈরি নিয়ে প্রতিবেদন করার সময় যমুনা টিভির সিনিয়র সাংবাদিক ও ক্যামেরাপার্সনকে ধাওয়া করে আটকের পর কেরোসিন ঢেলে হত্যাচেষ্টা চালায় পলিথিন তৈরির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কিছু লোক।

এ হত্যাচেষ্টাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে একাত্মতা ঘোষণা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। অবিলম্বে ফুটেজ দেখে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো সংবাদের রিপোর্টের বিষয়ে দ্বিমত থাকলে সেক্ষেত্রে সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগ করে প্রতিবাদলিপি দেয়ার সুযোগ আছে। আইনি ব্যবস্থা নেয়ার সুযোগও আছে। কিন্তু কেরোসিন ঢেলে বর্বর হত্যাচেষ্টার মতো জঘন্য কাজ সভ্য সমাজেও মানা যায় না। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা সাধারণ মানুষের স্বার্থেই। সে গণমাধ্যম এভাবে আক্রান্ত হওয়া কখনোই কাম্য নয়। একই সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাম্প্রদায়িক হামলাকারীদের বিচার দাবি করেন তিনি।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান বলেন, সাংবাদিকদের উপর গতকালের হামলা আমাদের আতঙ্কিত করে। সাংবাদিকদের দ্বারা অপরাধীরা অবৈধ কাজে বাধা প্রাপ্ত হয়ে হামলার নতুন কৌশল করছে যা সাংবাদিকতার বিকাশে বাধা স্বরূপ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ফরহাদ উদ্দিন বলেন, সাংবাদিকদের উপর হামলা নতুন নয়। অপরাধীদের দ্রুত কঠোর শাস্তির আওতায় না আনা হলে ভবিষ্যতে সাংবাদিকতা হুমকির মুখে পড়বে।

মানববন্ধনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ গণমাধ্যমের বিভিন্ন কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

গত রোববার বেলা ১২টার দিকে রাজধানীর চকবাজারের দেবিদাস ঘাট এলাকায় পলিথিন তৈরির ছবি তোলার সময় যমুনা টিভির সাংবাদিক ও ক্যামেরাপার্সনকে ধাওয়া করে কারখানার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট লোকেরা। হামলার এক পর্যায়ে রিপোর্টার শাকিল হাসান ও ক্যামেরাপারসন শাহীন আলমের শরীরে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। স্থানীয় লোকদের সহায়তায় শেষ পর্যন্ত তারা বেঁচে যান।

সম্পাদনা: জাহিদ


সর্বশেষ

আরও খবর

বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে ৪ জন নিহত

বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে ৪ জন নিহত


হাসপাতালের বেডে সুইসাইড নোট রেখে করোনা রোগীর আত্মহত্যা

হাসপাতালের বেডে সুইসাইড নোট রেখে করোনা রোগীর আত্মহত্যা


করোনা নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের কবিতা

করোনা নিয়ে ওবায়দুল কাদেরের কবিতা


আলেমদের ওপর জুলুম আল্লাহ বরদাশত করবেন না: বাবুনগরী

আলেমদের ওপর জুলুম আল্লাহ বরদাশত করবেন না: বাবুনগরী


সকালে কন্যা সন্তানের জন্ম, বিকালেই করোনায় মায়ের মৃত্যু

সকালে কন্যা সন্তানের জন্ম, বিকালেই করোনায় মায়ের মৃত্যু


করোনায় দেশে একদিনে শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড

করোনায় দেশে একদিনে শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড


করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ১০ হাজার

করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ১০ হাজার


জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জরিমানা


লকডাউনের নামে সরকার ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে: ফখরুল

লকডাউনের নামে সরকার ক্র্যাকডাউন চালাচ্ছে: ফখরুল


ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক

ছয় দিনে নির্যাতিত অর্ধশত সাংবাদিক: মামলা নেই, কাটেনি আতঙ্ক