Monday, February 27th, 2017
সাক্ষীর অভাবে ১৩ বছরেও শেষ হয়নি বিচার
February 27th, 2017 at 1:38 pm
সাক্ষীর অভাবে ১৩ বছরেও শেষ হয়নি বিচার

ঢাকা: সাক্ষীর অভাবে দীর্ঘ ১৩ বছর পেরিয়ে গেলেও লেখক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার বিচার কার্যক্রম শেষ হয়নি। জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পরও সাক্ষীরা আদালতে হাজির হচ্ছে না, যে কারণে বিচার কাজ ধীর গতিতে এগিয়ে চলেছে।

আলোচিত এ মামলার ৫৮ সাক্ষীর মধ্যে ৩৮ জনের সাক্ষ্য এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। এখনো মামলার গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী দুই ডাক্তারসহ ২০ জন বাকী রয়েছেন। তারা সাক্ষ্য দিলেই মামলার কার্যক্রম শেষ করবে রাষ্ট্রপক্ষ। তবে বারবার আদেশের পরও দুই ডাক্তার আদালতে হাজির না হওয়ায় বিচার কাজ থেমে আছে।

মামলাটি বর্তমানে ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ জাহিদুল কবিরের আদালতে বিচারাধীন। মামলার গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী, যে দুই ডাক্তারের কারণে বিচার শেষ হচ্ছে না তারা হলেন- ডা. শহিদুল ইসলাম ও ডা. শওকত হাসান।

ডা. শহিদুল ইসলাম ওই সময়ে সহকারি রেজিস্ট্রার হিসেবে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্মরত ছিলেন। আর ডা. শওকত হাসান সার্জিক্যাল বিশেষজ্ঞ হিসেবে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) কর্মরত ছিলেন। তারা দু’জনই ড. হুমায়ুন আজাদের শরীরের জখমের পরীক্ষা করেছিলেন।

২০০৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে বইমেলা থেকে বাসায় ফেরার পথে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের সামনে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন ড. হুমায়ুন আজাদ। তাকে চাপাতি ও কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। ঘটনার পরদিন ২৮ ফেব্রুয়ারি তার ভাই মঞ্জুর কবির রমনা থানায় একটি হত্যা চেষ্টা মামলা করেন।

হামলার পর হুমায়ুন আজাদ ২২ দিন সিএমএইচে এবং ৪৮ দিন ব্যাংককে চিকিৎসারত ছিলেন। পরে ১শ’ ৬৩ দিন পর জার্মানির মিউনিখে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বছরেরই ১২ আগস্ট তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর পর মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তর হয়।

মামলায় জেএমবির শূরা সদস্য মিজানুর রহমান ওরফে মিনহাজ ওরফে শফিক ও আনোয়ার আলম ওরফে ভাগিনা শহিদ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। মামলার অপর আসামিরা হলেন- জেএমবির শূরা সদস্য মিজানুর রহমান ওরফে মিনহাজ ওরফে শফিক, আনোয়ার আলম ওরফে ভাগিনা শহিদ। আর এখনো পলাতক রয়েছেন নূর মোহাম্মদ ওরফে সাবু ও সালাহউদ্দিন।

প্রতিবেদন: প্রীতম, সম্পাদনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শাবি শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন


নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

নির্বাচনী সহিংসতায় ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু


নটরডেম ছাত্রের মৃত্যু: তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন ডিএসসিসির

নটরডেম ছাত্রের মৃত্যু: তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন ডিএসসিসির


আগামী বছর দেশে টিকা উৎপাদন শুরু হতে পারে: সালমান এফ রহমান

আগামী বছর দেশে টিকা উৎপাদন শুরু হতে পারে: সালমান এফ রহমান


মুশফিককে বিসিবির কারণ দর্শানোর নোটিশ

মুশফিককে বিসিবির কারণ দর্শানোর নোটিশ


জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে খালেদা জিয়া: মির্জা ফখরুল

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে খালেদা জিয়া: মির্জা ফখরুল


বিএনপি যত খুশি গালি দিক, কিছু করার নেই: আইনমন্ত্রী

বিএনপি যত খুশি গালি দিক, কিছু করার নেই: আইনমন্ত্রী


কড়াইল বস্তিতে ছয় হাজার টিকা দিল ডিএনসিসি

কড়াইল বস্তিতে ছয় হাজার টিকা দিল ডিএনসিসি