Monday, June 27th, 2022
সালমান শাহর মৃত্যু: পুনঃতদন্তের দায়িত্ব পেল পিবিআই
December 7th, 2016 at 7:50 pm
সালমান শাহর মৃত্যু: পুনঃতদন্তের দায়িত্ব পেল পিবিআই

ঢাকা: ডিবি, সিআইডি ও র‌্যাবের পর এবার চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ঘটনা পুনঃতদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম লস্কর সোহেল রানা পিবিআইকে মামলার পুনঃতদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলার নথিপত্র থেকে জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর নিউ ইস্কাটন গার্ডেন এলাকায় সালমান শাহর ভাড়া বাসার ড্রেসিং রুম থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার দেহ নামানো হয় বলে তার স্ত্রী সামিরা পুলিশকে জানান। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওই ঘটনায় সালমানের বাবা কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী রমনা থানায় অপমৃত্যুর মামলা করেন। থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করলেও পরে তা ডিবির কাছে যায়। তদন্ত শেষে ডিবি প্রতিবেদন দিয়ে বলে, ‘সালমানের মৃত্যু আত্মহত্যা।’ বাদীপক্ষ ডিবির প্রতিবেদন গ্রহণ না করলে তদন্ত সিআইডির কাছে যায়। সিআইডিও একই প্রতিবেদন দেয়।

পরে আদালতের আদেশে ১৫ বছর ধরে চলে বিচার বিভাগীয় তদন্ত। ২০১৪ সালের ৯ জুলাই বিচার বিভাগীয় তদন্তে বলা হয়, সালমান খুন হননি। এই আদেশের বিরুদ্ধে নারাজি দেন সালমানের মা নীলা চৌধুরী। এর শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি র‌্যাবকে তদন্ত করতে নির্দেশ দেন ঢাকার সিএমএম আদালত। কিন্তু ওই আদেশ স্থগিত চেয়ে ঢাকা মহানগরের প্রধান সরকারি কৌঁসুলি আবদুল্লাহ আবু ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে রিভিশন মামলা করেন।

শুনানি শেষে গত ২৫ আগস্ট র‍্যাবকে তদন্ত করার সিএমএমের আদেশ বাতিল করেন ঢাকার বিশেষ জজ-৬ আদালত। একই সঙ্গে আদালত বিচার বিভাগীয় প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে সালমানের মায়ের নারাজি আবেদন পুনঃশুনানি করতে ঢাকার সিএমএম আদালতকে নির্দেশ দেন।

মামলা সূত্রে আরো জানা যায়, চিত্রনায়ক সালমান শাহর রহস্যজনক মৃত্যুর পর সালমানের বাবার বাসা থেকে গ্রেপ্তার হন রিজভী আহমেদ নামের এক ব্যক্তি। মিথ্যা পরিচয় দিয়ে বাসায় ঢোকার ঘটনায় ক্যান্টনমেন্ট থানায় করা মামলায় আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন রিজভী। তাতে তিনি বলেন, সালমান আত্মহত্যা করেননি। সালমানকে খুন করা হয়েছে। কেন, কী কারণে, কীভাবে ও কারা সালমানকে হত্যা করেছে, তা সবিস্তারে জবানবন্দিতে বলেছেন রিজভী। মিথ্যা পরিচয় দিয়ে সালমানের বাবার বাসায় ঢোকার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত রিজভীকে ২০০১ সালে দেড় বছর কারাদণ্ড দেন। রিজভী গ্রেপ্তারের পর আদালত থেকে জামিন নিয়ে পলাতক রয়েছেন।

পরে রিজভীর দেওয়া জবানবন্দি পুরোপুরি মিথ্যা ও বানোয়াট বলে আদালতে প্রতিবেদন দেয় সিআইডি। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘সালমানের মা নীলা চৌধুরী, ক্যান্টনমেন্ট থানার তৎকালীন ওসি শাহাবুদ্দিন, এসআই বদরুল আলম তালুকদার ও এসআই কাইয়ুম চৌধুরী রিজভীকে নির্যাতন ও প্রলোভন দিয়ে জবানবন্দি আদায় করেছেন।’

গ্রন্থনা: প্রীতম সাহা সুদীপ, সম্পাদনা: ইয়াসিন


সর্বশেষ

আরও খবর

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব

সংসদে ৬,৭৮,০৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব


আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন

আ’লীগ নেতা বিএম ডিপোর একক মালিক নন


চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ

চীনের সাথে বাণিজ্য ঘাটতি কমাতে চায় বাংলাদেশ


ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার

ভোজ্যতেল ও খাদ্য নিয়ে যা ভাবছে সরকার


তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন

তৎপর মন্ত্রীগণ, সীতাকুণ্ডে থামেনি দহন


অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?

অত আগুন, এত মৃত্যু, দায় কার?


যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার

যে গল্প এক অদম্য যোদ্ধার


আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০

আফগান ও ভারতীয় অনুপ্রবেশ: মে মাসে আটক ১০


সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি

সীমান্ত কাঁটাতারে বিদ্যুৎ: আলোচনায় বিজিবি-বিজিপি


চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর সরকার