Monday, April 1st, 2019
সুফল মিলছে না বিআরটিএ’র ডিজিটাল নাম্বার প্লেটের, ক্ষুব্ধ যানবাহন মালিকরা
April 1st, 2019 at 8:45 pm
সুফল মিলছে না বিআরটিএ’র ডিজিটাল নাম্বার প্লেটের, ক্ষুব্ধ যানবাহন মালিকরা

আসাদুজ্জামান মিলন

ঢাকা: নিরাপত্তা, শৃঙ্খলা, আধুনিকায়ন, অপরাধ দমন ও গ্রাহক সেবার মান বাড়াতে ২০১২ সাল থেকে বিআরটিএ গাড়িতে ডিজিটাল নম্বর প্লেট ও আরএফআইডি স্টিকার লাগানো শুরু করে। অথচ গত সাড়ে ৬ বছরেও মেলেনি এর সুফল। এর মধ্যে ২৬ লাখ গাড়ির মালিকের পকেট থেকে বেরিয়ে গেছে প্রায় ৮’শ কোটি টাকা। নম্বর প্লেট ও স্টিকার বাবদ বাহন অনুযায়ী ৪৬২৮ ও ২২৬০ টাকা গ্রাহকদের কাছ থেকে আদায় করছে বিআরটিএ।

এদিকে, সাড়ে ৬ বছর হলেও সড়ক বা মহাসড়কে এখনো স্থাপন করা হয়নি সেন্ট্রাল সার্চিং টাওয়ার। শুধু স্টিলের শিটে ডাইসের মাধ্যমে ডিজিটাল নম্বর খোদাই করে এবং গাড়ির গ্লাসে আর এফ আইডি স্টিকার লাগিয়েই বিআরটিএর দায়িত্ব শেষ করেছে।

নানা হয়রানি থেকে রক্ষাসহ আইনীসেবা পেতে খরচ করে যারা এই প্লেট গাড়িতে লাগিয়েছেন তারা এখন চরম ক্ষুব্ধ। ডিজিটাল নম্বর প্লেট সংযুক্ত গাড়ি চুরি যাওয়ার মাসের পর মাস গড়ালেও শনাক্ত করা যাচ্ছে না গাড়ির অবস্থান। ফলে কোটি কোটি টাকার ডিজিটাল নম্বর প্লেট প্রজেক্ট নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ভুক্তভোগী গাড়ি মালিকদের মনে।

এদিকে, পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সঙ্গে এর কোন সংযুক্তি না থাকায় গাড়ি চুরি প্রতিরোধে কোন ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না বলে জানান বিভাগটির যুগ্ম কমিশনার। পাশাপাশি সনাতন পদ্ধিতে সোর্স লাগিয়ে এবং পুলিশের নিজস্ব কৌশল ব্যবহার করে উদ্ধার করতে হচ্ছে চুরি যাওয়া গাড়ি।

এ বিষয়ে ট্রাফিক বিভাগের যুগ্ম কমিশনার মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, গাড়িতে ডিজিটাল নম্বর-প্লেট বসানো হলেও এগুলো মনিটরিং করার ডিভাইস আমাদের কাছে নেই। তবে ট্রাফিক থেকে কিছু কিনে তা মনিটরিং করা যায় কিনা সে বিষয়ে আলোচনা চলছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সঠিক পরিকল্পনা, জবাবদিহিতা এবং দক্ষ জনবল না থাকায় এ প্রকল্প সফলতার মুখ দেখেনি। গাড়ি শনাক্তকরণ, যানজট এড়ানোসহ দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে কাজে লাগার কথা ছিল ডিজিটাল নাম্বার প্লেট। তবে সঠিক পরিকল্পনা এবং দক্ষ জনবল না থাকায় এ থেকে সুফল পাওয়া যাচ্ছে না। বাস্তবায়নে সুফল না মেলায় দায়ী করছেন বিআরটিএকে।

পরিবহন ও নগর উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. সামছুল হক বলেন, ‘আমাদের দেশে বিভিন্ন প্রকল্প করা হয় তবে তা ব্যবহারের জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হয় না। এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে দায় নিতে হবে। এছাড়াও এসব ক্ষেত্রে পেশাদারী জনবলেরও অভাব রয়েছে।’

বিআরটিএ বলছে, শিগগিরই নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার করে সেবার মান বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হবে। তবে বর্তমানে পর্যাপ্ত পরিমাণে আরএফআইডি স্টেশন ও টাওয়ার না থাকার অভিযোগ স্বীকার করে বিআরটিএর রোড সেফটির পরিচালক শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই-রাবানী বলেন, ‘এ প্রযুক্তি ব্যবহারে সফলতা আসতে সময় লাগবে। শিগগিরই নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার করে সেবার মান বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হবে। এতে ডিজিটাল নম্বর প্লেটের পুরোপুরি সুফল পাওয়া যাবে।’ তবে এ ব্যাপারে কোনো সুনির্দিষ্ট সময় জানাতে পারেননি বিআরটিএ।

প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়িয়ে অপরাধ নির্মূলে বিআরটিএ আবারও নতুন প্রকল্প হাতে নিবে বলে জানান এই কর্মকর্তা। তবে ততদিন পর্যন্ত গ্রাহকরা আধুনিক সুবিধা থেকে বঞ্চিতই থেকে যাবেন।


সর্বশেষ

আরও খবর

লেদারল্যান্ডের ঢোল

লেদারল্যান্ডের ঢোল


১ বছর নিষিদ্ধ হলেন শেহজাদ

১ বছর নিষিদ্ধ হলেন শেহজাদ


আবারো বাড়ল সোনার দাম

আবারো বাড়ল সোনার দাম


নবম ওয়েজ বোর্ডের বিষয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার

নবম ওয়েজ বোর্ডের বিষয়ে আপিলের আদেশ মঙ্গলবার


নরসিংদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

নরসিংদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪


বরগুনার মেয়রের ছেলে ইয়াবাসহ ঢাকায় গ্রেপ্তার

বরগুনার মেয়রের ছেলে ইয়াবাসহ ঢাকায় গ্রেপ্তার


মিরপুরের আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ৩ হাজার পরিবার

মিরপুরের আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ৩ হাজার পরিবার


মিয়ানমারের সামরিক কলেজে বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত ১৫

মিয়ানমারের সামরিক কলেজে বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত ১৫


পাক-ভারত সীমান্তে গোলাগুলি, ভারতের ৫ ও পাকিস্তানের ৩ সেনা নিহত

পাক-ভারত সীমান্তে গোলাগুলি, ভারতের ৫ ও পাকিস্তানের ৩ সেনা নিহত


ঈদের চতুর্থ দিনে সড়কে ঝরল ২৫ প্রাণ

ঈদের চতুর্থ দিনে সড়কে ঝরল ২৫ প্রাণ