Monday, July 4th, 2016
‘সেখানে ওসি মহিউদ্দিন ও নেজাম উদ্দিন ছিলো’
July 4th, 2016 at 3:36 pm
‘সেখানে ওসি মহিউদ্দিন ও নেজাম উদ্দিন ছিলো’

চট্টগ্রাম: পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার প্রধান সন্দেহভাজন আসামি কামরুল ইসলাম মুছাকে তার বড় ভাই সাইদুল হক সিকদার সাকুসহ ১৩ দিন আগে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান মুছার স্ত্রী পান্না আকতার।

পান্না জানান, ২২জুন (বুধবার) সকাল ৭টার দিকে বন্দর এলাকার আমাদের পরিচিত ড্রাইভার নুরুন্নবীর বাসা থেকে আমার ভাসুর সাইদুল হক সাকু ও  স্বামী কামরুল ইসলাম সিকদার মুছাকে ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

সেখানে পুলিশদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওসি মহিউদ্দিন সেলিম ও নেজাম উদ্দিন, পুলিশ সদস্যরা নিজেদের মধ্যে কথা- বার্তা বলার সময় এই দুইজন সেখানে আছেন এটা জেনেছি, উল্লেখ করেন পান্না।

তিনি আরো বলেন, ‘প্রথমে ভাসুর সাইদুল হক সাকুকে নিয়ে যায়, এর আধাঘন্টা পর পুলিশ মুছাকে নিয়ে যায়। মুছাকে নেয়ার ৪৫ মিনিট  থেকে ১ ঘন্টা পর ছেড়ে দেয় আমাদের, দুই ছেলেসহ আমাকে পুলিশ নজরদারিতে রাখে।’

২-৩দিন পর বাকলিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি করতে গেলে পুলিশ জিডি গ্রহণ করেনি, বাকলিয়া থানা পুলিশ বলে, যে থানা থেকে মুছাকে ধরা হয়েছে সেই থানায় জিডি করতে হবে, উল্লেখ করেন পান্না।

তিনি আরো বলেন, মিতু হত্যা মামলায় যতজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের সবাইকে আদালতে হাজির করা হয়েছে, এখন প্রশাসন থেকে বলছে মুছাকে গ্রেফতার করা যায়নি, ২২ জুন মুছাকে গ্রেফতার করার পর ২৩-২৪ জুন টিভিতে হেডলাইনে দেখায় ‘মুছা গ্রেফতার’ পুলিশ প্রথমে বলেছিল ‘মুছাকে গ্রেফতার করছে পরে বলছে গ্রেফতার করেনি’।

মুছার স্ত্রী বলেন, ‘কিছু দিন আগে শুনেছি বাবুল আক্তার স্যারের মুখোমুখি করার জন্য মুছা সহ চারজনকে ঢাকায় নেয়া হয়েছে। কিন্তু বাকি তিনজনকে আদালতে তুললেও মুছাকে কোথায় রেখেছে তারা।’

‘সরকার ও প্রশাসনের কাছে দাবি মুছাকে আমি জীবিত চাই, আমার স্বামীকে ফেরত চাই, আমার স্বামী যদি দোষ করে তাহলে আইন আছে, আদালত আছে, আদালতে মুছাকে হাজির করা হোক, উল্লেখ করেন পান্না।

তিনি বলেন, ‘মুছা বাবুল আক্তারের স্ত্রীকে হত্যা করতে পারে না, কেন হত্যা করবে সে। যদি হত্যা করে থাকে তাহলে তাকে আদালতে হাজির করা হোক তার পিছনে কে আছে সব বেরিয়ে আসবে।’

গত ৫ জুন চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে বাসার কাছে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হয় বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু্। এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক ওয়াসিম ও আনোয়ার নামের দুই আসামি আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিতে মুসাকে এই হত্যাকাণ্ডের প্রধান সমন্বয়কারী বলে উল্লেখ করেছে।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/এসএন/পিএসএস/জাই


সর্বশেষ

আরও খবর

২৬ জনের মৃত্যুর ঘটনায় সেই স্পিডবোট মালিক গ্রেফতার

২৬ জনের মৃত্যুর ঘটনায় সেই স্পিডবোট মালিক গ্রেফতার


বিজিবি মোতায়েনের পরও ঘাটে কোনভাবেই বন্ধ হচ্ছে না যাত্রী পারাপার

বিজিবি মোতায়েনের পরও ঘাটে কোনভাবেই বন্ধ হচ্ছে না যাত্রী পারাপার


ঈদের আগে দূরপাল্লার গণপরিবহন চালুর দাবি

ঈদের আগে দূরপাল্লার গণপরিবহন চালুর দাবি


যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ, শিমুলিয়া ঘাট থেকে হাজারো মানুষকে ফিরিয়ে দিচ্ছে পুলিশ

যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ, শিমুলিয়া ঘাট থেকে হাজারো মানুষকে ফিরিয়ে দিচ্ছে পুলিশ


শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে যাত্রী ও গাড়ির প্রচণ্ড চাপ, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি


দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির

দাম বাড়ল মুরগি ও চিনির


খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়া প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত শিগগিরই: আইনমন্ত্রী


যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যে যেখানে আছেন সেখানেই সবাইকে ঈদ উদযাপন করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি

১৬ মে পর্যন্ত লকডাউনের প্রজ্ঞাপন জারি


২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন

২১ দিন পর বৃহস্পতিবার থেকে সড়কে গণপরিবহন