Monday, February 27th, 2017
হামলা থেকে বাঁচতে হিন্দুদের তিলক, সিঁদুর পরার পরামর্শ
February 27th, 2017 at 9:31 am
হামলা থেকে বাঁচতে হিন্দুদের তিলক, সিঁদুর পরার পরামর্শ

ডেস্ক: পাশ্চাত্যের দেশগুলোতে হিন্দুরা যাতে ‘হেইট ক্রাইমে’র হাত থেকে বাঁচতে পারেন তার জন্য হিন্দু পুরুষদের কপালে তিলক ও হিন্দু মহিলাদের সিঁদুর পরার পরামর্শ দিয়েছে হিন্দু সংহতি নামের ভারতে একটি হিন্দু সংগঠন। খবর বিবিসি।

হিন্দু সংহতি-র সভাপতি তপন ঘোষ বলেন, হিন্দুরা যদি তিলক-সিঁদুরের মাধ্যমে নিজেদের আলাদা পরিচয় তৈরি করতে পারেন তাহলে পাশ্চাত্যে ইসলাম-বিরোধী হামলাগুলোর আঁচ তাদের গায়ে লাগবে না।

তবে তার এই বক্তব্য সামনে আসার পর ভারতের সোশ্যাল মিডিয়াতে তুমুল সমালোচনা হচ্ছে, অনেকেই বলছেন হিন্দুদের এভাবে বাঁচানোর কথা বলে তিনি কি অন্য ধর্মের লোকজনের ওপর হামলাকেই সমর্থন করছেন?

বুধবার আমেরিকার কানসাসের একটি বারে শ্রীনিবাস কুচিবোটলা নামে এক প্রবাসী ভারতীয় যুবককে ঠান্ডা মাথায় গুলি করে হত্যা করে মার্কিন নৌবাহিনীর এক সাবেক সেনা।

ভারতে বছরদশেকের পুরনো কট্টরপন্থী হিন্দু সংগঠন হিন্দু সংহতি মনে করছে, ওই হিন্দু যুবক যদি কপালে তিলক পরে থাকতেন তাহলে তিনি হয়তো ওই হামলার হাত থেকে বেঁচেও যেতে পারতেন – কারণ হিন্দুরা আসলে না কি এই সব আক্রমণের নিশানা নন। সংগঠনের নেতা তপন ঘোষের পরামর্শ, পাশ্চাত্যের হিন্দুরা নিজেদের আলাদা করে চেনাতে কপালে তিলক বা সিঁদুর ব্যবহার করে দেখুন।

তিনি বলেন, “এটা পরলে সবাই চিনতে পারবেন যে হিন্দু আসলে কারা। কে না জানে শিখরা বহুবার আক্রান্ত হয়েছেন কারণ বিন লাদেনের পাগড়ির সঙ্গে তাদের পাগড়িকে অনেকে গুলিয়ে ফেলেছে। অনেক তরুণ প্রজন্মের শিখ তো নিরাপত্তার জন্য পাগড়ি পরা ছেড়েই দিয়েছে।”

“এখন যেহেতু পশ্চিমা দেশগুলোতে প্রচুর সংখ্যায় হিন্দু আছে, তাই হিন্দু ছেলেরা যদি তিলক আর হিন্দু মহিলারা বিন্দি বা সিঁদুর পরা শুরু করেন – তাদের অবশ্যই আলাদা পরিচিতি তৈরি হবে। সেই জন্যই আমি ওই প্রস্তাবি দিয়েছি।”

সংবাদমাধ্যমে তার এই মন্তব্য প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তুমুল তর্কবিতর্ক শুরু হয়েছে – অনেকেই যেমন তার প্রস্তাব অবাস্তব ও কুরুচিপূর্ণ বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন, তেমনি অনেকে আবার তা সমর্থনও করছেন।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক প্রিয়ংবদা সরকারের মতে, তিলক-সিঁদুরের কথা বলে হিন্দু পরিচয়টাকেই আসলে খুব সরলীকরণ করে ফেলা হচ্ছে।
তিনি বলছিলেন, “পরিচিতি বা আইডেন্টিটি জিনিসটা সহজ নয় মোটেই – এর ভেতরে অনেক জটিলতা আছে। আর পরিচয় মানে কখনওই শুধু ধর্মীয় পরিচয় হতে পারে না, এখানেই একটা মস্ত গন্ডগোল করে ফেলা হচ্ছে।”

নিউ জার্সি-তে বহু বছর ধরে বাস করেন কলকাতার ছেলে শৌভিক রায়, তিনি আবার বলছিলেন আমেরিকায় তিনি কখনওই তিলক পরার কথা স্বপ্নেও ভাববেন না। তার কথায়, “এটা আসলে ভীষণ বোকার মতো প্রস্তাব। আসলে যখনই একটা জাতি বা ধর্মীয় গোষ্ঠী নিজেদের আলাদা করে দেখাতে চায়, আলাদা ভাষায় বা ভঙ্গীতে কথা বলে কিংবা আলাদা ‘অ্যাপিয়ারেন্স’ দিতে চায় – তখনই কিন্তু বাদবাকি অভিন্ন সমাজে তাদের ঘিরে একটা সংশয় বা ‘ডাউট’ তৈরি হতে পারে।”

ভারতে এই হিন্দু সংগঠনগুলোর বক্তব্য, পশ্চিমা দেশগুলোতে হিন্দুরা সাধারণভাবে শান্তিপ্রিয় বলেই পরিচিত, সমাজে তারা ইতিবাচক ভূমিকা রাখেন। সুতরাং নিজেদের সুরক্ষার জন্যই তাদের আলাদা পরিচিতি চাই – কেনই বা তারা অন্য ধর্মের ওপর হামলার শিকার হতে যাবেন?

গ্রন্থনা ও সম্পাদনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৫

বগুড়ায় বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৫


দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল

দেশে আরও ৯৫০০ জনের করোনা শনাক্ত, হার ২৫ ছাড়াল


টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী

টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হলেন আইভী


অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে বাস চলার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন


আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর

আগুনে পুড়ল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ১২০০ ঘর


এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী

এবারের বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী


কমলো এলপিজির দাম

কমলো এলপিজির দাম


উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

উন্নয়নশীল দেশ নিয়ে খুশি না হয়ে, উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির


ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব

ডিআরইউর নতুন সভাপতি মিঠু, সাধারণ সম্পাদক হাসিব


ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ওমিক্রন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ; সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার