Wednesday, June 1st, 2016
‘হিটলিস্ট এখন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার’
June 1st, 2016 at 9:28 am
‘হিটলিস্ট এখন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার’

প্রীতম সাহা সুদীপ, ঢাকা: ‘একটি সভ্য দেশে কি করে জঙ্গিরা প্রকাশ্যে মুক্তচিন্তকদের হিটলিস্ট প্রকাশ করে’ এমন প্রশ্ন রেখেছেন প্রবাসে থাকা ব্লগার শাম্মি হক। সম্প্রতি আবারো শাম্মিসহ প্রবাসে থাকা ৪ ব্লগারকে হত্যার হুমকি দিয়ে একটি তালিকা প্রকাশ করেছে জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম।

গত সোমবার রাতে সালাউদ্দিনের ঘোড়া নামের একটি ফেসবুক পেইজে ছবি প্রকাশ করে শাম্মিসহ ব্লগার আসিফ মহিউদ্দিন, সানিউর রহমান, অনন্য আজাদকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। তাদের মধ্যে ব্লগার আসিফ ও সানিউরের নামের পাশে দ্বিতীয় পর্ব লেখা ছিল। কারণ এর আগেও তারা জঙ্গি হামলার শিকার হয়েছিলেন। এই চারজন ব্লগারই বর্তমানে বিদেশে রয়েছেন।

ফেসবুকে হত্যার হুমকি দিয়ে তালিকা প্রকাশের পর মঙ্গলবার রাতে নিউজনেক্সটবিডি ডটকমের সাথে এ প্রসঙ্গে কথা বলেন ব্লগার শাম্মি। তিনি বলেন, ‘হিটলিস্ট এখন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। একের পর এক মুক্তচিন্তকদের হত্যার হুমকি দিয়ে তালিকা প্রকাশ করা হচ্ছে। যে দেশের সরকার জঙ্গি পোষে সেখানে এইসব হিটলিস্ট কোন বড় ইস্যু না আমার কাছে।’

শাম্মি হক বলেন, একটা সভ্য দেশে কি করে প্রকাশ্যে মুক্তচিন্তকদের হিটলিস্ট প্রকাশ করা হয়? ফেসবুক পেইজ, টুইটার বিভিন্ন মাধ্যমে এসব হিটলিস্ট প্রকাশ করা হচ্ছে। বাংলাদেশের গোয়েন্দা বিভাগ চাইলে ৫ মিনিটের মধ্যে এসব পেইজের এডমিনদের গ্রেফতার করতে পারে। কিন্তু তা করা হচ্ছে না। এই সরকার পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত এর কোন সমাধান হবে না।

একই প্রসঙ্গে গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘কাউকে হত্যা করা বা আঘাত করা ধর্ম রক্ষা নয়। সমাজের অন্ধকার দিকগুলো দূর করা না গেলে উগ্রবাদও দূর করা যাবে না। একটি মহল ব্লগারদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়াচ্ছে, উস্কানি দিচ্ছে। এটা বন্ধ হওয়া প্রয়োজন।’

তিনি বলেন, ‘হত্যা একটি জঘন্যতম অপরাধ। অতীতে ব্লগারদের ওপর আক্রমণ ও হত্যার বিচার না হওয়ায় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। বিচারহীনতার সংস্কৃতি অপরাধী ও জঙ্গিদের অপরাধ সংঘটনে উৎসাহিত করে। অতীতের ঘটনাগুলোর যদি সুষ্ঠু বিচার হতো এতগুলো হত্যাকাণ্ড ও প্রাণনাশের হুমকির ঘটনা ঘটতো না।’

৪ ব্লগারকে হত্যার হুমকির বিষয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান নিউজনেক্সটবিডি ডটকমকে বলেন, ‘ফেসবুক পেজে হত্যার হুমকির বিষয়টি আমরাও জানতে পেরেছি। কারা এ হুমকি দিচ্ছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

গত তিন বছরে দেশে টার্গেট কিলিংয়ের শিকারে পরিণত হয়েছেন অন্তত অর্ধশতজন, যাদের মধ্যে অধিকাংশই ব্লগার, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট, লেখক প্রকাশক এবং শিক্ষক। ২০০৮ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি লেখক ড. হুমায়ুন আজাদকে দিয়ে টার্গেট কিলিং শুরু হয়।

এরপর চলতে থাকে একের পর এক হত্যাযজ্ঞ। ২০১৩ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি পল্লবীতে একই কায়দায় কুপিয়ে খুন করা হয় ব্লগার রাজীব হায়দারকে। ওই বছরেরই ৯ এপ্রিল বুয়েট শিক্ষার্থী আরিফ রহমান দ্বীপ, ২১ ডিসেম্বর পীর লুৎফর রহমানসহ ৬ সহযোগী প্রাণ হারান।

২০১৪ সালের ১ আগস্ট সাভারে ব্লগার আশরাফুল আলম, ২৭ আগস্ট ঢাকার রাজাবাজারে টিভি উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকী, ১৫ নভেম্বর রাবির অধ্যাপক শফিকুল ইসলামকে একই কায়দায় খুন করা হয়।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাবিতে মুক্তমনা লেখক অভিজিৎ রায়কে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তারপর ৩০ এপ্রিল তেজগাঁওয়ে অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ওয়াশিকুর রহমান বাবু, ১২ মে সিলেটে ব্লগার অনন্ত বিজয় দাস, ৭ আগস্ট পূর্ব গোরানে অনলাইন এ্যাক্টিভিস্ট নীলাদ্রি চটোপাধ্যায় ওরফে নীলয় নীল, ৩১ অক্টোবর শাহবাগে প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপন খুন হন।

২০১৬ সালের ৮ এপ্রিল সূত্রাপুরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নাজিমউদ্দিন সামাদও টার্গেট কিলিংয়ের শিকার হন। ২৩ এপ্রিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) অধ্যাপক ড. এ এফ এম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার দুদিনের মধ্যে একই কায়দায় চাপাতির আঘাতে খুন হন বাংলাদেশে হিজড়া ও সমকামীদের অধিকার বিষয়ক ম্যাগাজিন ‘রূপবান’ এর সম্পাদক জুলহাস মান্নান এবং নাট্যকর্মী মাহাবুব রাব্বি তনয়।

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/পিএসএস/এমএস/এসআই


সর্বশেষ

আরও খবর

চীন-ভারত বৈরিতা নতুন করে জঙ্গিবাদ  উত্থানের সম্ভাবনা তৈরী করেছে

চীন-ভারত বৈরিতা নতুন করে জঙ্গিবাদ উত্থানের সম্ভাবনা তৈরী করেছে


শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন: ‘পুতুল’ খেলার আঙিনায় বেজে উঠুক ‘জয়’র বাঁশি

শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন: ‘পুতুল’ খেলার আঙিনায় বেজে উঠুক ‘জয়’র বাঁশি


২৫ সেপ্টেম্বর ১৯৭৪, জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধু

২৫ সেপ্টেম্বর ১৯৭৪, জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধু


ভাইরাসের সাথে বসবাস

ভাইরাসের সাথে বসবাস


লন্ডন ফিরছেন আইএস বধু ব্রিটিশ-বাংলাদেশী শামীমা বেগম!

লন্ডন ফিরছেন আইএস বধু ব্রিটিশ-বাংলাদেশী শামীমা বেগম!


তাসের ঘর : দুর্দান্ত স্বস্তিকায় নারীমুক্তি?

তাসের ঘর : দুর্দান্ত স্বস্তিকায় নারীমুক্তি?


সৌন্দর্যসেবায় আয় কমেছে সবার: বেকার ৪০ শতাংশ উদ্যোক্তা-কর্মী

সৌন্দর্যসেবায় আয় কমেছে সবার: বেকার ৪০ শতাংশ উদ্যোক্তা-কর্মী


১৯৭১ ভেতরে বাইরে সত্যের সন্ধানে

১৯৭১ ভেতরে বাইরে সত্যের সন্ধানে


বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডঃ জিয়া-এরশাদ-খালেদা কর্তৃক খুনিচক্রের স্বার্থরক্ষা

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডঃ জিয়া-এরশাদ-খালেদা কর্তৃক খুনিচক্রের স্বার্থরক্ষা


বঙ্গবন্ধুকে হত্যা, কথা বলছে ইতিহাস!

বঙ্গবন্ধুকে হত্যা, কথা বলছে ইতিহাস!