Tuesday, January 3rd, 2017
২৩৬৭ মুক্তিযোদ্ধার সম্মান ও স্বীকৃতি মিললো আপিলে
January 3rd, 2017 at 12:10 pm
২৩৬৭ মুক্তিযোদ্ধার সম্মান ও স্বীকৃতি মিললো আপিলে

ঢাকা: বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ন্যাপ, কমিউনিস্ট পার্টি, ছাত্র ইউনিয়ন সদস্যদের নিয়ে গঠিত বিশেষ গেরিলা বাহিনীর দুই হাজার ৩৬৭ জনকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি, প্রাপ্য সম্মান, মর্যাদা ও সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার সংক্রান্ত হাইকোর্টের রায় বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বভাগ।

মঙ্গলবার সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন খারিজ করে এই আদেশ দেন।

আদালতে মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে শুনানি করেন জেষ্ঠ্য আইনজীবী ড. কামাল হোসেন, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, আইনজীবী তবারক হোসেন। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার উর্মি রহমান।

এর আগে ৯ অক্টোবর সরকারকে নির্দেশ দেয়া হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেন চেম্বার বিচারপতি। তারও আগে ২৫ সেপ্টেম্বর দুই হাজার ৩৬৭ জনকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি বিষয়ে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছেন রাষ্ট্রপক্ষ। ওই দিন আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা এই আবেদন করেন।

৮ সেপ্টেম্বর বিশেষ গেরিলা বাহিনীর ২ হাজার ৩৬৭ জনকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই রায় দেন।

আদালতে রিটকারীদের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী তবারক হোসেন ও সুব্রত চৌধুরী। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের পক্ষে শুনানি করেন শম রেজাউল করিম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এস এম নাজমুল হক।

পরে আইনজীবী তবারক হোসেন বলেন, “তিনটি সংগঠনের সদস্যেদের নিয়ে গঠিত ২ হাজার ৩৬৭ জনকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তাদের সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান ও যথাযথ সম্মান প্রদানের নির্দেশও দিয়েছেন আদালত।”

জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৪ জুলাই এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বিশেষ গেরিলা বাহিনীর ২৩৬৭ জন মুক্তিযোদ্ধাকে স্বীকৃতি দেন তৎকালীন মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়।

তবে ২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর ওই প্রজ্ঞাপনকে ত্রুটিপূর্ণ আখ্যা দিয়ে তা বাতিল করে আরেকটি প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রণালয়।নতুন এই প্রজ্ঞাপন জারির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ঐক্য ন্যাপের সভাপতি ও বিশেষ গেরিলা বাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার পঙ্কজ ভট্টাচার্য ২০১৪ সালের ১১ ডিসেম্বর রিট দায়ের করেন। ওই রিটের প্রেক্ষিতে ২০১৫ সালের ১৯ জানুয়ারি হাইকোর্ট নতুন প্রজ্ঞাপনটি স্থগিত করে রুল জারি করেন।

রুলে নতুন প্রজ্ঞাপনটি কেন বাতিল করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। সরকার, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। সেই রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে ৮ সেপ্টেম্বর রায় দেন।

প্রতিবেদক: ফায়েজ, সম্পাদনা: প্রণব


সর্বশেষ

আরও খবর

অভিজিৎ রায় হত্যায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ১ জন

অভিজিৎ রায় হত্যায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ১ জন


সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের মামলার তদন্তে পিবিআই

সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের মামলার তদন্তে পিবিআই


আল্লামা শফীকে হত্যার অভিযোগে ৩৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আল্লামা শফীকে হত্যার অভিযোগে ৩৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা


বঙ্গবন্ধুর চার পলাতক খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিতে হাইকোটের্র নির্দেশ

বঙ্গবন্ধুর চার পলাতক খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিতে হাইকোটের্র নির্দেশ


বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর: রিমান্ডে চার

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর: রিমান্ডে চার


ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে

বাস পোড়ানোর মামলায় বিএনপির ২৮ নেতাকর্মী রিমান্ডে


শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন

শিশু ধর্ষণের মামলায় দ্রুততম রায়ে আসামির যাবজ্জীবন


সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যার প্রতিবাদে লন্ডনে ‘আমরা সিলেট বাসীর’ মানব বন্ধন

সিলেটে পুলিশি নির্যাতনে রায়হান হত্যার প্রতিবাদে লন্ডনে ‘আমরা সিলেট বাসীর’ মানব বন্ধন


ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, অধ্যাদেশে রাষ্ট্রপতির সই

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, অধ্যাদেশে রাষ্ট্রপতির সই