Monday, December 19th, 2016
৪৫ বছরেও স্বীকৃতি মেলেনি জোনাব আলীর
December 19th, 2016 at 9:07 pm
৪৫ বছরেও স্বীকৃতি মেলেনি জোনাব আলীর

ঝিনাইদহ: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে অস্ত্র হাতে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন জোনাব আলী।

এবার স্বাধীনতার ৪৬তম বার্ষিকী পালন করেছে গোটা জাতি। কিন্ত ঝিনাইদহের বিষয়খালী এলাকায় যুদ্ধকরা জোনাব আলী আজো পায়নি মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি।

রনাঙ্গনের সেই দুঃসহ স্মৃতি এখনো তাকে তাড়া করে ফেরে। কিন্তু রনাঙ্গনের এই যোদ্ধার এখন প্রশিক্ষণ সার্টিফিকেটই ভরসা।

ভারতের মাজদিয়া যুব ক্যাম্পের প্রশিক্ষণ সনদ নিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন তিনি। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তার নাম তালিকায় ওঠেনি। স্বাধীনতার ৪৫ বছর পার হয়েছে। কত বিতর্কিত ব্যক্তির নাম তালিকায় উঠেছে। কিন্তু জোনাব আলীর ভাগ্য টলেনি।

তালিকায় নাম ওঠাতে বিভিন্ন সময় টাকা দাবি করার কারণে সম্মুখ যুদ্ধে লড়াই করা এই বীর নীরবে নিভৃত্বে জীবন যাপন করছেন।

জোনাব আলী ১৯৫৭ সালের ২০ ফেব্রয়ারি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গাগান্না গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবার নাম মৃত ইশারত আলী মন্ডল। যুবক বয়সে ডাক আসে যুদ্ধে যাওয়ার। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি অস্ত্র হাতে ঝাপিয়ে পড়েন যুদ্ধে। চোখের সামনে অনেক সহযোদ্ধাকে অকাতরে জীবন দিতে দেখেছেন তিনি।

জোনাব আলী জানান, জেবা মুন্স নামে এক কমান্ডারের অধীনে তিনি বিষয়খালী ফ্রন্টে যুদ্ধ করেছেন। তিনি হতদরিদ্র হওয়ায় মাজদিয়া যুব ক্যাম্পের প্রশিক্ষণ সনদ ছাড়া তার কাছে আর কিছুই নেই। তার সঙ্গে যুদ্ধ করেছিলেন সদর উপজেলার সাহেব নগর গ্রামের ফজলুর রহমান, একই গ্রামের ইসাহাক আলী ও আবুল কাশেম। তাদের নাম তালিকায় উঠলেও তিনি বছরের পর বছর ঘুরে হয়রান।

মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান, ইসাহাক আলী ও আবুল কাশেমও জানালেন জোনাব আলী প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা। তাদের দাবি জোনাব আলীর নাম তালিকাভুক্ত করার।

জোনাব আলী জানান, তিনি এ পর্যন্ত বহুবার ফরম পুরণ করেছেন, কিন্তু গেজেটে তার নাম আসেনি। স্ত্রী সন্তান নিয়ে খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন রনাঙ্গনের এই যোদ্ধা।

স্টেন গানের গুলিতে পাক বাহিনীকে পরাস্ত করলেও অভাবের কাছে তিনি এখন এক পরাজিত সৈনিক। এটা তার জন্য লজ্জাকর। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ অফিসে যোগাযোগ করা হলে জোনাব আলীর বিষয়ে কোনো তথ্য তারা দিতে পারেনি।

প্রতিনিধি, সম্পাদনা: জাহিদ

 


সর্বশেষ

আরও খবর

হাঁটুপানিতে দাঁড়িয়েই ঈদের জামাত আদায়

হাঁটুপানিতে দাঁড়িয়েই ঈদের জামাত আদায়


রডবোঝাই ট্রাকে বাড়ি ফেরার পথে গাইবান্ধায় প্রাণ গেল ১৩ জনের

রডবোঝাই ট্রাকে বাড়ি ফেরার পথে গাইবান্ধায় প্রাণ গেল ১৩ জনের


ছেলের মৃত্যুর খবর শুনে স্ট্রোক করে বাবার মৃত্যু

ছেলের মৃত্যুর খবর শুনে স্ট্রোক করে বাবার মৃত্যু


বিষ মিশিয়ে বানর হত্যা মামলায় নারীকে কারাগারে প্রেরণ

বিষ মিশিয়ে বানর হত্যা মামলায় নারীকে কারাগারে প্রেরণ


অঘোষিত লকডাউনের মাসেও সড়কে গেছে ২১১ প্রাণ

অঘোষিত লকডাউনের মাসেও সড়কে গেছে ২১১ প্রাণ


মারা গেলেন দেশের দীর্ঘ মানব জিন্নাত আলী

মারা গেলেন দেশের দীর্ঘ মানব জিন্নাত আলী


নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সরকারী ত্রাণ পেলো ৩৩,০৮২টি পরিবার

নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশনের সরকারী ত্রাণ পেলো ৩৩,০৮২টি পরিবার


করোনা ভাইরাসে নারায়নগঞ্জে মোট আক্রান্ত ৬,২৫জন, মৃত্য ৩৯

করোনা ভাইরাসে নারায়নগঞ্জে মোট আক্রান্ত ৬,২৫জন, মৃত্য ৩৯


গাজীপুরে এক পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যা

গাজীপুরে এক পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যা


লকডাউন জেলায় জানাজায় লাখো মানুষের ঢল

লকডাউন জেলায় জানাজায় লাখো মানুষের ঢল