Monday, December 19th, 2016
৪৫ বছরেও স্বীকৃতি মেলেনি জোনাব আলীর
December 19th, 2016 at 9:07 pm
৪৫ বছরেও স্বীকৃতি মেলেনি জোনাব আলীর

ঝিনাইদহ: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে অস্ত্র হাতে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন জোনাব আলী।

এবার স্বাধীনতার ৪৬তম বার্ষিকী পালন করেছে গোটা জাতি। কিন্ত ঝিনাইদহের বিষয়খালী এলাকায় যুদ্ধকরা জোনাব আলী আজো পায়নি মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি।

রনাঙ্গনের সেই দুঃসহ স্মৃতি এখনো তাকে তাড়া করে ফেরে। কিন্তু রনাঙ্গনের এই যোদ্ধার এখন প্রশিক্ষণ সার্টিফিকেটই ভরসা।

ভারতের মাজদিয়া যুব ক্যাম্পের প্রশিক্ষণ সনদ নিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন তিনি। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তার নাম তালিকায় ওঠেনি। স্বাধীনতার ৪৫ বছর পার হয়েছে। কত বিতর্কিত ব্যক্তির নাম তালিকায় উঠেছে। কিন্তু জোনাব আলীর ভাগ্য টলেনি।

তালিকায় নাম ওঠাতে বিভিন্ন সময় টাকা দাবি করার কারণে সম্মুখ যুদ্ধে লড়াই করা এই বীর নীরবে নিভৃত্বে জীবন যাপন করছেন।

জোনাব আলী ১৯৫৭ সালের ২০ ফেব্রয়ারি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গাগান্না গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবার নাম মৃত ইশারত আলী মন্ডল। যুবক বয়সে ডাক আসে যুদ্ধে যাওয়ার। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি অস্ত্র হাতে ঝাপিয়ে পড়েন যুদ্ধে। চোখের সামনে অনেক সহযোদ্ধাকে অকাতরে জীবন দিতে দেখেছেন তিনি।

জোনাব আলী জানান, জেবা মুন্স নামে এক কমান্ডারের অধীনে তিনি বিষয়খালী ফ্রন্টে যুদ্ধ করেছেন। তিনি হতদরিদ্র হওয়ায় মাজদিয়া যুব ক্যাম্পের প্রশিক্ষণ সনদ ছাড়া তার কাছে আর কিছুই নেই। তার সঙ্গে যুদ্ধ করেছিলেন সদর উপজেলার সাহেব নগর গ্রামের ফজলুর রহমান, একই গ্রামের ইসাহাক আলী ও আবুল কাশেম। তাদের নাম তালিকায় উঠলেও তিনি বছরের পর বছর ঘুরে হয়রান।

মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান, ইসাহাক আলী ও আবুল কাশেমও জানালেন জোনাব আলী প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা। তাদের দাবি জোনাব আলীর নাম তালিকাভুক্ত করার।

জোনাব আলী জানান, তিনি এ পর্যন্ত বহুবার ফরম পুরণ করেছেন, কিন্তু গেজেটে তার নাম আসেনি। স্ত্রী সন্তান নিয়ে খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন রনাঙ্গনের এই যোদ্ধা।

স্টেন গানের গুলিতে পাক বাহিনীকে পরাস্ত করলেও অভাবের কাছে তিনি এখন এক পরাজিত সৈনিক। এটা তার জন্য লজ্জাকর। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ অফিসে যোগাযোগ করা হলে জোনাব আলীর বিষয়ে কোনো তথ্য তারা দিতে পারেনি।

প্রতিনিধি, সম্পাদনা: জাহিদ

 


সর্বশেষ

আরও খবর

রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে ৮ আসামির মালামাল ক্রোকের নির্দেশ

রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে ৮ আসামির মালামাল ক্রোকের নির্দেশ


৫৬ পয়েন্টে পানি বাড়ছে, বন্যা পরিস্থিতি অবনতির শঙ্কা

৫৬ পয়েন্টে পানি বাড়ছে, বন্যা পরিস্থিতি অবনতির শঙ্কা


নির্বাচনী প্রচারণায় ভ্যান থেকে পড়ে আহত মির্জা ফখরুল

নির্বাচনী প্রচারণায় ভ্যান থেকে পড়ে আহত মির্জা ফখরুল


জামালপুরের আলোচিত ডিসি আহমেদ কবীর বরখাস্ত

জামালপুরের আলোচিত ডিসি আহমেদ কবীর বরখাস্ত


জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ফতুল্লায় একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ফতুল্লায় একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী


জামালপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

জামালপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু


২ লাখ পিছ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৮ নাগরিক আটক

২ লাখ পিছ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৮ নাগরিক আটক


কুমিল্লায় বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

কুমিল্লায় বাসচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


পুলিশের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, ওসিসহ আহত ৪

পুলিশের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, ওসিসহ আহত ৪


গাজীপুরে বিস্ফোরণে ভবনধস, আহত ১৮

গাজীপুরে বিস্ফোরণে ভবনধস, আহত ১৮